খুলনার ক্লাবগুলোকে পুলিশের সতর্কতা

Send
খুলনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২০:৩৭, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৪০, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯

খুলনার কয়েকটি ক্লাবরাজধানীতে অভিযান শুরুর পর খুলনার ক্লাবগুলোকে সতর্ক করেছে পুলিশ। মৌখিক এ সতর্ক বার্তায় বলা হয়েছে, ক্লাবগুলোতে কোনও ধরনের অপকর্ম করতে দেওয়া হবে না। এখন এগুলো বন্ধ রাখতে হবে। সতর্কতা ভেঙে কোনও ক্লাব মদক ও জুয়ার আসর বসালে ছাড় দেওয়া হবে না। বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) থেকে ক্লাবগুলোকে সতর্ক করে আসছে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাতে টাউন ক্লাবে ওয়ান টেন খেলার খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে অভিযানে যায়। তবে সেখান থেকে কাউকে আটক করা যায়নি।

খুলনা কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম বাহার বুলবুল বলেন, ‘খুলনার ক্লাবপাড়ায় ইতোমধ্যেই জুয়া আর মাদকের আসরসহ যেকোনও ধরনের অপকর্ম বন্ধের জন্য সংশ্লিষ্টদের ম্যাসেজ দেওয়া হয়েছে। এসব স্থানে জুয়া ও মাদকের কোনও কারবার চালাতে দেওয়া হবে না। এরপরও কেউ সেখানে এ ধরনের অপরাধ করলে বা করার চেষ্টা চালালে কঠোর হাতে দমন করা হবে।’

টাউন ক্লাবের নিপত্তারক্ষী আলী হোসেন বলেন, ‘এখানে আগে নিয়মিত ওয়ান টেন হতো। পুলিশ সতর্ক করার পর সব বন্ধ রয়েছে। তারপরও শুক্রবার রাত ১০টার দিকে পুলিশ এখানে এসেছিল। তবে তখন কোনও ধরনের খেলা না থাকায় পুলিশ ফিরে যায়।’

আবাহনী ক্রীড়া চক্রের নিরাপত্তাকর্মী আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘ঢাকার ঘটনার পর খুলনায় আবাহনী ক্লাবে খেলা বন্ধ রাখা হয়েছে।’

স্থানীয় একজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, এখানে এখনও জুয়া চলমান রয়েছে। শনিবার রাতেও মোহামেডন স্পোর্টিং ক্লাবে হাউজি খেলা ও টাউন ক্লাবে ওয়ান টেন খেলা হয়েছে। অভিযানের খবর পেয়ে দ্রুত খেলা বন্ধ করা হয়। ফলে পুলিশ এসে কোনও কিছু পায়নি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মহানগরীর ক্লাবগুলোতে ক্রীড়া উন্নয়নের নামে চলে আসছে জুয়ার আসর। আছে মাদকেরও ছড়াছড়ি।

 

/আইএ/

লাইভ

টপ