ছাত্রলীগ, যুবলীগকে বুঝে-শুনে কাজ করতে হবে: অর্থমন্ত্রী

Send
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
প্রকাশিত : ২০:৩৩, অক্টোবর ০৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫৫, অক্টোবর ০৯, ২০১৯

চট্টগ্রামে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামালনিজেদের কোনও কর্মকাণ্ডে কোথাও যেন বিতর্ক সৃষ্টি না হয় সেদিকে খেয়াল রেখে ছাত্রলীগ, যুবলীগকে কাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল। তিনি বলেছেন, ‘যারা ছাত্রলীগ করে, যারা যুবলীগ করে, তাদের একটা বিশেষ দায়িত্ব আছে। আপনারা যে দল করেন ওই দলের নেতা ছিলেন বঙ্গবন্ধু। তাই আপনাদের দায়বদ্ধতা অনেক বেশি। এটি মাথায় রেখে ছাত্রলীগ, যুবলীগকে বুঝে-শুনে কাজ করতে হবে। পা ফেলতে হবে হিসাব করে। তাদের কোনও কর্মকাণ্ডে কোথাও যেন বির্তক সৃষ্টি না হয় সেটি লক্ষ রাখতে হবে।’

বুধবার (৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম নগরীর ষোলশহরে এলজিইডি ভবনের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত স্মরণসভায় তিনি এসব কথা বলেন। প্রয়াত আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আতাউর রহমান খান কায়সারের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এ স্মরণসভার আয়োজন করা হয়। সভায় অর্থমন্ত্রী প্রধান অতিথি ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমিও তো ছাত্রলীগ করতাম। আমার নামে বিতর্ক নেই কেন। আমি টিউশনি করে, লজিং থেকে পড়াশোনা করেছি। আমার তো টাকা-পয়সা ছিল না। যদি সেই জায়গা থেকে আজ আমি বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী হতে পারি, এখন যারা ছাত্রলীগ করেন বা যুবলীগ করেন, তাদের মধ্যে এত প্রতিযোগিতা কেন? এগুলো কীসের প্রতিযোগিতা? নিজেকে শেষ করে দেওয়ার জন্য প্রতিযোগিতা, দেশকে ধ্বংস করে দেওয়ার জন্য প্রতিযোগিতা?’

তিনি বলেন, ‘তোমরা সফল হবে না। সফল হবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সফল হবেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান। সফল হবে ছাত্রলীগ-যুবলীগের সেসব নেতা, যারা নিবেদিতপ্রাণ,যারা দেশপ্রেমিক।’

প্রয়াত আতাউর রহমান খান কায়সারকে নিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আতাউর রহমান খান কায়সার ভাইরা ক্ষণজন্মা মানুষ। তাদের কখনও মৃত্যু হয় না। আজ পৃথিবীতে হয়তো তারা আমাদের সঙ্গে সম্পর্কহীন। তাদের যে স্মৃতি, তাদের যে আদর্শ এবং দেশের জন্য তাদের যে ভালোবাসা, তারা যেভাবে মানুষদের ভালোবেসেছেন, মানুষের কল্যাণে নিজেদের উৎসর্গ করেছেন, এগুলো হচ্ছে আমাদের সবচেয়ে বড় পাওয়া।’

আ হ ম মোস্তফা কামাল বলেন, ‘আমরা একটা ট্রানজিশনাল সময় পার করছি। একটা অস্থির সময় পার করছি। কোথাও একটা সাংঘাতিক রকমের গ্যাপ তৈরি হয়েছে। আজ আপনারা যা দেখতে পাচ্ছেন এটি প্রকৃত সত্য নয়। এটি চিরস্থায়ী নয়। চিরস্থায়ী হলো যেটি সুন্দর, যেটি শাশ্বত। আমি বিশ্বাস করি আমাদের এই অস্থিরতার দিন কেটে যাবে। আতাউর রহমান খান কায়সাররা যে উদ্দেশ্যে রাজনীতি করতেন, দেশের মানুষকে ভালোবাসতেন, যে রাজনীতি আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করেন, যে রাজনীতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শিখিয়ে গেছেন, সেই রাজনীতির পথে এগিয়ে যাবো আমরা।’

নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম। চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় স্মরণসভায় আরও বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, নঈম উদ্দিন চৌধুরী, আলতাফ হোসেন বাচ্চু, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম প্রমুখ। পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য দেন আতাউর রহমান খান কায়সারের কন্যা সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি ওয়াসিকা আয়েশা খান।

/এফএস/এমওএফ/

লাইভ

টপ