টেকনাফে পচে যাচ্ছে মিয়ানমারের পেঁয়াজ, কৃত্রিম সংকট তৈরির অভিযোগ

Send
আবদুর রহমান, টেকনাফ
প্রকাশিত : ০৭:৫৯, অক্টোবর ১৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৮:১১, অক্টোবর ১৬, ২০১৯

পচা পেঁয়াজকক্সবাজারের টেকনাফ স্থলবন্দরে মিয়ানমার থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ পচে যাচ্ছে। গত এক সপ্তাহে প্রায় তিন হাজার বস্তা পেঁয়াজ পচে গেছে বলে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন। তারা বলছেন, খালাসে দেরি হওয়ায় এ অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে। তবে বন্দর কর্তৃপক্ষ বলছে,বাজারে পেঁয়াজের কৃত্রিম সংকট তৈরি করতে ব্যবসায়ীরা কৌশল অবলম্বন করছেন।

টেকনাফ শুল্ক স্টেশন ও স্থলবন্দর সূত্রে জানা গেছে, এ মাসের শুরু থেকে ১৩ তারিখ পর্যন্ত মিয়ানমার থেকে আসা আট হাজার ৪৯৭ দশমিক ১১ মেট্রিক টন পেঁয়াজ টেকনাফ স্থলবন্দরে খালাস করা হয়েছে। সর্বশেষ ১৩ অক্টোবর ৫৩ হাজার বস্তা (দুই হাজার ৮০ মেট্রিক টন) পেঁয়াজ মিয়ানমার থেকে আনা হয়। এর মধ্যে মোহাম্মদ হাসেমের ৬৪০ ও মোহাম্মদ জব্বারের কাছে ৩২০ টন পেঁয়াজ আসে। বাকিগুলো আসে অন্য ব্যবসায়ীদের কাছে। গত দু’দিনে মিয়ানমার থেকে কোনও পেঁয়াজের ট্রলার টেকনাফ বন্দরে আসেনি। বিপুল পরিমাণ পেয়াঁজ আমদানি হলেও স্থানীয় বাজারে পেঁয়াজের দাম সহনীয় পর্যায়ে আসছে না বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

মঙ্গলবার সরেজমিনে টেকনাফ স্থলবন্দর ঘুরে দেখা যায়, পচা পেঁয়াজ খোলা জায়গায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে রাখা হয়েছে। কয়েকজন শ্রমিক এর মধ্য থেকে ভালো পেঁয়াজগুলো খুঁজে বের করছেন। ঘাটে সাতটি পেঁয়াজের ট্রলার এখনও খালাসের অপেক্ষায় রয়েছে।

পচা পেঁয়াজনূর আলম নামে এক পেঁয়াজ ব্যবসায়ী বলেন, ‘অন্যের ট্রলারে করে আমার কিছু পেঁয়াজ আনা হয়েছিল। খালাসে দেরি হওয়ায় পেঁয়াজগুলো নষ্ট হয়ে গেছে। বন্দরের গাফিলতির কারণে ব্যবসায়ীদের লাখ লাখ টাকা লোকসান গুনতে হচ্ছে।’

এ ব্যাপারে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এহতেশামুল হক বাহাদুর বলেন, ‘গত এক সপ্তাহে মিয়ানমার থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ খালাসে দেরি হওয়ায় নষ্ট হয়ে গেছে। বন্দর কর্তৃপক্ষের জনবলের অভাবে প্রতিদিন ব্যবসায়ীদের পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এতে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আসা কমে গেছে।’ তিনি বলেন, ‘রাতে বন্দর কর্তৃপক্ষ পেঁয়াজের ট্রাকের ছাড়পত্র দিচ্ছে না। ব্যবসায়ীদের লোকসান কমাতে সরকারের নজরদারি বাড়ানো দরকার।’

টেকনাফ স্থলবন্দরের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘ব্যবসায়ীরা মিয়ানমার থেকে নিম্নমানের পেঁয়াজ আমদানি করায় সেগুলো পচে যাচ্ছে। মূলত বাজারে পেঁয়াজের কৃত্রিম সংকট তৈরি করতে ব্যবসায়ীরা টালবাহানা করছে। মিয়ানমারে পেঁয়াজের যেসব ট্রলার লোড হয়, সেগুলো এখানে পৌঁছাতে ১০ দিন সময় লাগে। বন্দর কর্তৃপক্ষ ব্যবসায়ীদের সাধ্যমতো সেবা দিয়ে যাচ্ছে।’

পচা পেঁয়াজটেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রবিউল হাসান বলেন,‘বন্দর কর্তৃপক্ষকে মিয়ানমার থেকে আসা পেঁয়াজের ট্রলার দ্রুত খালাস করে ছেড়ে দিতে বলা হয়েছে। কেন পেঁয়াজ নষ্ট হচ্ছে, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

এদিকে, পেঁয়াজের বাজার স্বাভাবিক রাখতে মঙ্গলবার দুপুরে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ জালাল উদ্দিনসহ একটি প্রতিনিধি দল টেকনাফ স্থলবন্দর ঘুরে দেখেন এবং ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন, টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রবিউল হাসান।

খাতুনগঞ্জ পেঁয়াজ বাজারে দুই প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

আমদানি মূল্যের দ্বিগুণ দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জ বাজারের দুই প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) দুপুরে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলাম এ জরিমানা করেন।

প্রতিষ্ঠান দুটি হলো–মেসার্স আজমির ভাণ্ডার ও শাহ আমানত ট্রেডার্স।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমদানি মূল্যের দ্বিগুণ দামে পাইকারিতে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে এমন অভিযোগ পেয়ে আমরা দুপুরে খাতুনগঞ্জে অভিযানে যাই। আমদানি মূল্য তালিকা যাচাই করে আমরা দুটি প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে অভিযোগের সত্যতা পাই। এর মধ্যে আজমির ভাণ্ডার ৪২ টাকা কেনা পেঁয়াজ পাইকারিতে ৭০ টাকা বিক্রি করছিল এবং শাহ আমানত ট্রেডার্স ৬৫ টাকা দরে বিক্রি করছিল। দুই প্রতিষ্ঠানকে ১০ হাজার টাকা করে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।’

তৌহিদুল ইসলাম আরও বলেন, ‘মিয়ানমার থেকে নিম্নমানের পেঁয়াজ আসছে, এমন অজুহাতে দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। আমদানিকারক ও আড়তদাররা প্রচার চালাচ্ছেন যে, মিয়ানমার থেকে আসা সব পেঁয়াজই পচা।’

গোপালগঞ্জে পেঁয়াজের মূল্য তালিকা না রাখায় ১৪ হাজার টাকা জরিমানা

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার ঘাঘর বাজারের চারটি পেঁয়াজের আড়তকে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পণ্যের মূল্য তালিকা না রাখা এবং ইচ্ছা মতো দামে বিক্রি করার অভিযোগে মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) তাদের এ জরিমানা করা হয়। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের গোপালগঞ্জের সহকারী পরিচালক শামীম হাসান এ জরিমানা করেন।

 

/আইএ/

লাইভ

টপ