বিএনপির নোংরা রাজনীতি পরিহার করা উচিত: হানিফ

Send
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:৪২, অক্টোবর ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৪৬, অক্টোবর ১৭, ২০১৯

গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে কথা বলছেন মাহবুবউল আলম হানিফ (ছবি– প্রতিনিধি)

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেছেন, ‘বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যার বিষয়টা প্রধানমন্ত্রী নিজে মনিটরিং করছেন। তিনি আবরারের মা-বাবাকে স্বান্তনা দিয়েছেন। আশ্বস্ত করেছেন যে, এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার হবে এবং দৃষ্টান্তমূলক বিচার হবে। বিএনপি আবরার হত্যা নিয়ে একটা ইস্যু বানাতে চায়। এ হত্যা নিয়ে বিএনপির নোংরা রাজনীতি পরিহার করা উচিত।’

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) কুষ্টিয়া মেডিক্যাল কলেজের নবম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, ‘বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী প্রত্যেক আসামিকে আইনের আওতায় আনার নির্দেশনা দিয়েছেন। ইতোমধ্যে এ হত্যার সঙ্গে জড়িত সব আসামি গ্রেফতার হয়েছে। রিমান্ডসহ ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিও নেওয়া হয়েছে। এ মামলার অভিযোগপত্র নভেম্বরের প্রথমদিকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দেবে বলেও আমরা আশা করি। মামলাটা দ্রুতগতিতেই চলছে। এ ঘটনার যাতে সুষ্ঠু বিচার হয়, সে ব্যাপারে সরকারের পক্ষ থেকে আন্তরিকভাবে চেষ্টা করা হচ্ছে।’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘ভিন্নমত প্রকাশের এখানে সুযোগ আছে বলেই তো বিএনপি আজ বিভিন্ন সভা-সমাবেশে এসব কথাগুলো বলার সুযোগ পাচ্ছে।’

বিএনপির আন্দোলন প্রসঙ্গে হানিফ বলেন, ‘বিএনপির আন্দোলনের কথা দেশবাসী জানে। বিএনপির কোনও নেতার কথা এখন আর দেশবাসী আমলেই নেয় না।’

এ সময় কুষ্টিয়া-১ (দৌলতপুর) আসনের সংসদ সদস্য আ কা ম সরওয়ার জাহান বাদশা, কুষ্টিয়া-৪ (কুমারখালী-খোকসা) আসনের সংসদ সদস্য সেলিম আলতাফ জর্জ, কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. আসলাম হোসেন, পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম তানভীর আরাফাত, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর উদ্দীন খান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলামসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

 

/এমএ/

লাইভ

টপ