মৌলভীবাজারে ছিনতাইকারী চক্রের ৬ সদস্য আটক

Send
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১০:১৫, অক্টোবর ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৫, অক্টোবর ২১, ২০১৯

ছিনতাই করা মালামালসহ ছয় ছিনতাইকারী গ্রেফতার

মৌলভীবাজার জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ছিনতাইকারি চক্রের ৬ সদস্যকে আটক করেছে মডেল থানা পুলিশ। ২০ অক্টোবর (রবিবার) ভোর রাত থেকে দিনব্যাপী জেলার শহরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়। মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি আলমগীর হোসেন এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আটক ব্যক্তিরা হলেন, শহরের গোবিন্দশ্রী এলাকার তৈয়ব উল্যাহর ছেলে মো. দুলাল (২৬), সদর উপজেলার জগন্নাথপুর এলাকার বশির মিয়ার ছেলে মো. জাবেদ (২৩) ও জামাল হোসেন (৩০), কমলগঞ্জের দাউদপুর এলাকার শওকত আলী (২০), রাজনগরের ইলাশপুর এলাকার আল আমিন মিয়া (২২), সদর উপজেলার বৃন্দাবনপুর এলাকার গোপাল দাসের ছেলে দিলীপ দাশ (২৬)।

মডেল থানা পুলিশ জানায়,  এই চক্রটি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুককে ছিনতাইয়ের ফাঁদ হিসেবে ব্যবহার করতো। এমন কি এই গ্যাংকে সরাসরি লিডিং দেন দুই ভাই। এসময় তারা ফটোগ্রাফার রিপন পালকে (১৯) ফটোসেশনের জন্য বিভিন্ন পথে ঘুরাফেরা করতে দেখে ছিনতাইয়ের পরিকল্পনা করে। ২৩ সেপ্টেম্বর রাত আনুমানিক ১টার দিকে সিএনজিতে করে কমলগঞ্জের আহমদনগর এলাকার নির্জন স্থানে ফটোগ্রাফারকে নিয়ে হাত, পা ও মুখ বেঁধে মারধর করে। এসময় রিপনের ব্যাগে থাকা লক্ষাধিক টাকার মূল্যের ক্যানন সিক্স হানড্রেড ডি মডেলের ক্যামেরা, ১৬ হাজার টাকার অপ্পো এ-থ্রি-সেভেন মডেলের মোবাইল ফোন ও মানিব্যাগসহ অর্ধলক্ষাধিক টাকা মূল্যের জিনিসপত্র ছিনতাই করে নেয়।

মাসখানেক পর ফটোগ্রাফার রিপন পাল হারানো ক্যামেরা ফেসবুকে বিক্রির বিজ্ঞাপন দেখতে পান। তিনি সার্বিক ঘটনার বিবরণ দিয়ে মৌলভীবাজার মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ ওই গ্যাংয়ের সদস্যদের আটক করতে সক্ষম হয়।

মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি আলমগীর হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘ভোররাত থেকে দিনব্যাপী এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। এই গ্যাং এর মধ্যে একই পরিবারের দুই ভাই আছেন। তারা এর আগেও বিভিন্ন সময় এই ধরণের ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিল। পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ক্যামেরা, মোবাইল, যাবাতীয় মালামাল, সিএনজি ও  টমটমসহ ৬ জনকে আটক করেছে।’

 

 

/জেবি/

লাইভ

টপ