সুনামগঞ্জে তুহিন হত্যা: বাবা ও দুই চাচার দ্বিতীয় দফা রিমান্ড

Send
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২০:৩৬, অক্টোবর ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৪৬, অক্টোবর ২১, ২০১৯

তুহিনসুনামগঞ্জের দিরাইয়ে পাঁচ বছরের শিশু তুহিনকে নৃশংসভাবে হত্যার ঘটনায় তার বাবা ও দুই চাচাকে দ্বিতীয় দফায় রিমান্ডে নেওয়ার বিষয়ে পুলিশের আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। তুহিনের বাবা আব্দুল বাছিরের পাঁচ দিন এবং চাচা আব্দুল মছব্বির ও জমসের আলীর তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্যাম কান্ত সিনহা। 

আজ সোমবার (২১ অক্টোবর) বিকালে আদালত এই আবেদন মঞ্জুর করেছেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আবু তাহের মোল্লা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ১৩ অক্টোবর রবিবার রাতে সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে রাতের আঁধারে তুহিনকে ঘুম থেকে তুলে হত্যা করা হয়। ঘাতকরা তার দুটি কান ও যৌনাঙ্গ কেটে পেটে দুটি ছুরি গেঁথে একটি গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে। পুলিশ প্রাথমিক তদন্তের পর জানায়, আধিপত্য বিস্তারের জেরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে তুহিনের স্বজনরাই তাকে হত্যা করে গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রেখেছিল।

তুহিনকে হত্যার ঘটনায় ১৫ অক্টোবর তার মা বাদী হয়ে ১০ জনকে আসামি করে দিরাই থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় তুহিনের চাচা মাওলানা আব্দুল মুছাব্বির, নাসির উদ্দিন, জুলহাস, জমসেদ আলী, বাবা আব্দুল বাছির ও চাচাতো ভাই শাহরিয়ারকে আসামি করা হয়। তাদের মধ্যে জুলহাস, শাহরিয়ার ও বাবা আব্দুল বাছির আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

মামলা দায়েরের পরপরই তুহিনের বাবা আব্দুল বাছির, চাচা আব্দুল মছব্বির ও জমশেদ মিয়াকে আদালতে হাজির করা হলে তাদের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। আজ দ্বিতীয় দফা রিমান্ডে পাঠানো হলো।

আরও পড়ুন- 

স্বামী, ভাশুর ও দেবরের ফাঁসি চান তুহিনের মা

বাবার কোলেই শিশু তুহিনকে হত্যা করা হয়

/এফএস/

লাইভ

টপ