নড়াইলে ২৩ কলেজ শিক্ষকের কাছে ‘জনযুদ্ধ’ পরিচয়ে ৪০ লাখ টাকা দাবি

Send
নড়াইল প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৯:৩৩, অক্টোবর ২২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৪৪, অক্টোবর ২২, ২০১৯

নড়াইল

নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ এবং নড়াইল সরকারি মহিলা কলেজের ২৩ শিক্ষকের কাছে বিপ্লবী কমিউনিস্ট পার্টি এমএল ‘জনযুদ্ধ’ ও ‘সর্বহারা’ পরিচয়ে প্রায় ৪০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করা হয়েছে। চাঁদা না দিলে পরিবারের সদস্যসহ শিক্ষকদের হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। শনিবার (১৯ অক্টোবর) ও রবিবার বিভিন্ন সময় জনযুদ্ধের আঞ্চলিক কমান্ডার ‘হাতকাটা বিপ্লব’ পরিচয়ে শিক্ষকদের মোবাইল ফোনে এ হুমকি দেওয়া হয়। এ ঘটনায় শিক্ষকদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক ও দর্শন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এম আব্দুর রহিমসহ এ বিভাগের অপর শিক্ষক আবুল হাসনাত খান, অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক এহসানুল হক, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক তরফদার সাজ্জাদ হোসেন টিপু ও প্রসেনজিৎ দাস, উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের শিক্ষক শিমুল কুমার ভক্ত, রসায়ন বিভাগের শিক্ষক হাসানুজ্জামান ছাড়াও কলেজের ২০ শিক্ষকের কাছে জনযুদ্ধ ও সর্বহারা পরিচয়ে দুই লাখ টাকা করে ৪০ লাখ চাঁদা দাবি করা হয়েছে। এই টাকা বিকাশ নম্বরে দিতে বলা হয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় মোবাইল ফোনে শিক্ষকদের অকথ্য ভাষায় গালাগাল দেওয়াসহ হত্যার হুমকি দিয়েছে। গত শনিবার (১৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় নড়াইল সরকারি মহিলা কলেজের অন্তত তিন শিক্ষকের কাছে একইভাবে জনযুদ্ধ পরিচয়ে চাঁদা দাবি করা হয়।

ভিক্টোরিয়া কলেজের প্রভাষক তরফদার সাজ্জাদ হোসেন টিপু জানান, রবিবার কলেজে অবস্থানকালে ১১টা ২৯ মিনিটে ০১৯৪৭-৯০৮৯৯৮ নম্বর থেকে তার মোবাইল ফোনে কল করে টাকা দাবি করে। তিনি এর প্রতিবাদ জানালে তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করা হয়।

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম বলেন, ‘বিষয়টি শিক্ষকদের মাধ্যমে অবগত হয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’

 

/জেবি/

লাইভ

টপ