বিপ্লবের ফেসবুক আইডি হ্যাক: ২৪ ঘণ্টায়ও কাজ শুরু করেনি পুলিশের তদন্ত কমিটি

Send
সালেহ টিটু, বরিশাল
প্রকাশিত : ০১:১৭, অক্টোবর ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:৫২, অক্টোবর ২৩, ২০১৯




ভোলা সদর রোডে পুলিশের টহল  ভোলায় ফেসবুক আইডি হ্যাক এর পর ম্যাসেঞ্জার থেকে মহানবীকে (সা.) নিয়ে কথিত কটূক্তি ও সংঘর্ষের ঘটনা খতিয়ে দেখতে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে করা তদন্ত কমিটি গঠন করা হয় রবিবার (২০ অক্টোবর)। কমিটি গঠনের পর ২৪ ঘণ্টারও বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও এখনও তদন্ত শুরু হয়নি। তবে এ ঘটনায় বিপ্লবসহ যে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের জিজ্ঞাসাবাদে বিস্তারিত জানা যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বোরহানউদ্দিন থানার এসআই মোহাইমিনুল ইসলাম।

পুলিশের তদন্ত কমিটির প্রধান বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘তদন্ত কমিটি গঠন করা হলেও এ সংক্রান্ত কোনও আদেশ পায়নি। পত্রিকার মাধ্যমে তদন্ত কমিটির প্রধান করার বিষয়টি জানতে পেরেছি। পুলিশ সদর দফতরে আদেশ আসেনি। আদেশের কপি হাতে পাওয়ার পর তদন্ত কার্যক্রম শুরু করা হবে।’
তবে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে গঠিত তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি সোমবার জেলা সদরে সভা করেছে এবং মঙ্গলবার থেকে সরেজমিনে তদন্ত শুরু করেছে। বুধবারের মধ্যে তদন্ত কমিটিকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে বলে জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন।
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বোরহানউদ্দিন থানার এসআই মোহাইমিনুল ইসলাম জানান, ওই মামলায় আটক তিন জনকে গ্রেফতার দেখিয়ে সোমবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বিপ্লবের আইডি থেকে কটুক্তির স্ট্যাটাস দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে তার আইডি হ্যাক করে স্ট্যাটাস দেওয়া হয়েছে কিনা তা তিনি নিশ্চিত নন। এমনকি তার আইডি আদৌ হ্যাক হয়েছে কিনা তাও জানতে পারেননি। এমনকি সন্দেহজনকভাবে আটক অপর দু’জন আইডি হ্যাক এর সঙ্গে জড়িত কিনা তাও জানা যায়নি। এগুলো খতিয়ে দেখা হবে বলে জানান তিনি।
তদন্ত কর্মকর্তা আরও জানান, গ্রেফতার তিন জনকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে আর্জি করা হবে। তারা কোনও সংগঠনের সঙ্গে জড়িত কিনা তা জানার চেষ্টা করা হবে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আসল ঘটনা জানা সম্ভব হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। তদন্তের স্বার্থে গ্রেফতার ইমন ও সাকিলের সম্পর্কে কোনও তথ্য দিতে রাজী হননি তিনি।
এদিকে, বোরহানউদ্দিনের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেওয়া হয়েছে। শহরজুড়ে টহল দিচ্ছে ৪ প্লাটুন বিজিবি, এক প্লাটুন কোস্টগার্ড এবং বিপুল সংখ্যক র্যারব ও পুলিশ। বাড়ানো হয়েছে গোয়েন্দা তৎপরতাও।
উল্লেখ্য, গত ১৮ অক্টোবর নিজের ফেসবুক আইডি হ্যাক হওয়ার অভিযোগে ভোলার বোরহানউদ্দিন থানায় জিডি করেন বিপ্লব চন্দ্র বৈদ্য (২৫) ওরফে শুভ। তার অ্যাকাউন্টের ম্যাসেঞ্জার থেকে ‘মহানবীকে নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্য’ ছড়িয়ে সেই ‘স্ক্রিনশট’ ব্যবহার করে গত শুক্রবার থেকে বোরহানউদ্দিনে উত্তেজনা সৃষ্টির অভিযোগ করা হয়। ফেসবুকে কথিত বক্তব্যের জেরে একটি পক্ষ উত্তেজনা ছড়ায়। রবিবার (২০ অক্টোবর) সকাল ১১টায় বোরহানউদ্দিন উপজেলা সদরের ঈদগাহ মাঠে প্রতিবাদ সভার ঘোষণা দেওয়া হয়। পুলিশ সেখানে সতর্ক অবস্থান নিলেও একটি গ্রুপ ঈদগাহ ময়দানে প্রবেশ করে মানুষকে উত্তেজিত করতে থাকে এবং পুলিশের ওপর হামলা চালায়। পরে ইউএনও ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে পুলিশ টিয়ারশেল, রাবার বুলেট ও গুলি চালায়। এতে চার জন নিহত হন। আহত হন ১০ পুলিশসহ প্রায় দেড়শতাধিক লোক।

আরও পড়ুন...
পুলিশি টহলেও থমথমে বোরহানউদ্দিন

বোরহানউদ্দিনে পুলিশ-এলাকাবাসী সংঘর্ষে নিহত ৪, অর্ধশতাধিক আহত 

যেভাবে বোরহানউদ্দিনে হামলা-সংঘর্ষ

বিপ্লবের আইডি হ্যাক হয়েছিল: পুলিশ সুপার

বোরহানউদ্দিনে সংঘর্ষ: পাঁচ হাজার জনকে আসামি করে মামলা

ভোলায় সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ

ভোলার ঘটনায় জড়িত কাউকে ছাড় নয়: প্রধানমন্ত্রী

ভোলার ঘটনায় পুলিশ সদর দফতরের ব্যাখ্যা: ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন 

 

/আইএ/

লাইভ

টপ