বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশ্নফাঁস চক্রের ১০ সদস্য আটক

Send
গোপালগঞ্জ ও বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:৩৯, নভেম্বর ০৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৪১, নভেম্বর ০৯, ২০১৯

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস চক্রের ১০ সদস্যকে আটক করা হয়েছে।

শনিবার (৯ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টায় পরীক্ষা কমিটির আহ্বায়ক ড. এম এ সাত্তার এবং উপাচার্য ড. মো. শাহজাহান সংবাদ সম্মেলন কেরে এসব তথ্য জানান।

আটকরা হলো সিভিল ইন্জিনিয়ারিং বিভাগের রনি খান, একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন বিভাগের নেয়ামুল, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের নয়ন এবং আইন বিভাগের অমিত গাইন, মানিক মজুমদার, হাসান, সাগর, তরিকুল, সুলাইমান, জাফেজ।  

জানা যায়, বিকাল ৩ টায় ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষার আগে এই সিন্ডিকেটের দুই সদস্যকে আটক করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এরপর একে একে অভিযান চালিয়ে বাকি সদস্যদের আটক করা হয়। পরীক্ষার দুই ঘণ্টা আগে প্রশ্নের সমাধান দেওয়ার খবরের ভিত্তিতে অভিযান চালালে পাঁচজন পরীক্ষার্থীসহ হাতেনাতে প্রশ্নফাঁস চক্রের ২ সদস্য আটক হয়।

এর আগে, শুক্রবার রাত ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর ছোট ভাইকে ভর্তি করিয়ে দেওয়ার জন্য ফোনালাপে চুক্তিবদ্ধ হয় রনি। এসময় সে (রনি) ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে চুক্তি করে। এরপর পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী রনির সাথে ওই শিক্ষার্থী দেখা করতে গেলে অভিযান চালায় রাষ্ট্রীয় একটি গোয়েন্দা সংস্থা এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এসময় বিজয় দিবস হলের ৫১২ নম্বর রুম থেকে ৫ জন পরীক্ষার্থীর কাগজপত্রের মূল কপি, ৫ পরীক্ষার্থীসহ সিন্ডিকেটটির সদস্যদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. রাজিউর রহমান জানান, তাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হবে।

 

 

/এএইচ/

লাইভ

টপ