behind the news
Rehab ad on bangla tribune
 
Vision Refrigerator ad on bangla Tribune

ভোটের অধিকার পাচ্ছেন নতুন নাগরিকরাসাবেক ছিটমহল সংশ্লিষ্ট ৮ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ স্থগিত

মোয়াজ্জেম হোসেন, লালমনিরহাট১৭:৪০, মার্চ ০১, ২০১৬

লালমনিরহাটস্বাধীনতার মাস মার্চে প্রথমবারের মতো ভোটের অধিকার পেতে যাচ্ছেন বিলুপ্ত ছিটমহলের নতুন বাংলাদেশিরা। তাই ছিটমহল সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নগুলোর ভোটগ্রহণ কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। এসব বিলুপ্ত ছিটমহলের নাগরিকদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার পর এ ইউনিয়নগুলোতে ভোট নেওয়া হবে। মঙ্গলবার (১ মার্চ) ভোটগ্রহণ স্থগিতের একটি চিঠি লালমনিরহাট জেলা ও উপজেলা নির্বাচন অফিসে এসে পৌঁছেছে বলে নিশ্চিত করেছেন লালমনিরহাট জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফজলুল করিম।
পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আফতাব হোসেন ও হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মনোয়ার হোসেন বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় দফার তফসিলে হাতীবান্ধা উপজেলার ১২টি ও পাটগ্রাম উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে ৩১ মার্চ একযোগে ভোট গ্রহণের তারিখ ঘোষণা করা হয়। কিন্তু বিলুপ্ত ছিটমহল সংশ্লিষ্ট হাতীবান্ধার গোতামারী ইউনিয়ন ও পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী, শ্রীরামপুর, জগতবেড়, বাউরা, পাটগ্রাম, কুচলিবাড়ী এবং জোংড়া ইউনিয়নের ভোট গ্রহণ কার্যক্রম স্থগিত করে আদেশ জারি করে নিবার্চন কমিশন। এসব ইউনিয়নে নতুন করে ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার পর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
লালমনিরহাট জেলার ৫৯টি বিলুপ্ত ছিটমহলের মধ্যে পাটগ্রামের ৭টি ইউনিয়নে অবস্থান ৫৫টির। এর মধ্যে ১৯টিতে কোনও জনবসতি নেই। বাকি ৩৬ টিতে লোকসংখ্যা আট হাজার ৫৫২ জন। অন্যদিকে হাতীবান্ধার ১২ টি ইউনিয়নের মধ্যে শুধুমাত্র গোতামারী ইউনিয়নে রয়েছে দুটি বিলুপ্ত ছিটমহল। এই দুই ছিটমহলে জনসংখ্যা ৫৬২ জন। আর অবশিষ্ট দুটি ছিটমহল সদর উপজেলায় রয়েছে। এ দুইটি ছিটমহলে এক হাজার ২৬২জন।
ইউনিয়নগুলোতে নির্বাচনি আমেজ বিরাজ করলেও ভোটাধিকার নিশ্চিত না হওয়ায় নির্বাচন কমিশনে ভোট স্থগিতের আবেদন করেন বিলুপ্ত ছিটমহলের অধিবাসীরা।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে লালমনিরহাট জেলা নিবার্চন কর্মকর্তা ফজলুল করিম বলেন, মঙ্গলবার দুপুরে লালমনিরহাটের ২০টি ইউনিয়নের মধ্যে ৮ টিতে দ্বিতীয় ধাপে ভোট গ্রহণ হচ্ছে না বলে আদেশ পেয়েছি। এরমধ্যে পাটগ্রামের ছিটমহল সংশ্লিষ্ট সাতটি ও হাতীবান্ধায় একটি ইউনিয়ন রয়েছে। তবে বাকিগুলোতে আগামী ৩১ মার্চ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে, বিলুপ্ত ভারত-বাংলাদেশ নির্বাচন ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির লালমনিরহাট শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম নির্বাচন কমিশন ও সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘গত ৬৮ বছর আমরা ভোট দিতে পারি নাই। আমরা নাগরিক অধিকার বঞ্চিত ছিলাম। গত বছর ৩১ জুলাই ছিটমহলের বন্দী দশা থেকে মুক্তির পর এবার ভোটাধিকার পেতে যাচ্ছি আমরা। এটি ছিটবাসীদের বাঁধভাঙা আনন্দের ঘটনা। এজন্য ভারত-বাংলাদেশের সরকার প্রধানকে ছিটবাসীর পক্ষ থেকে বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।’

উল্লেখ্য, লালমনিরহাট ৪৫ ইউনিয়নের মধ্যে দ্বিতীয় দফায় পাটগ্রাম উপজেলার ৮টি ও হাতীবান্ধা উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন এক যোগে ৩১ মার্চ হওয়ার কথা থাকলেও ছিটমহল সংশ্লিষ্ট পাটগ্রামের ৭টি ও হাতীবান্ধা উপজেলার একটি ইউনিয়ন ওই তারিখে ভোটগ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। তবে পাটগ্রামের দহগ্রাম ইউনিয়ন ও হাতীবান্ধার ১১টি ইউনিয়নের নির্বাচন ৩১ মার্চ এক যোগে অনুষ্ঠিত হবে বলে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফজলুল করিম নিশ্চিত করেছেন।

/এফএস/ 

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ