তনুর লাশের জায়গায় ঘাস ছিল, এখন পরিষ্কার: ড. মিজানুর

কুমিল্লা প্রতিনিধি১৮:২১, মার্চ ৩১, ২০১৬

ড. মিজানুরসোহাগী জাহান তনুর লাশ পড়ে থাকার জায়গায় ঘাস থাকলেও এখন তা পরিষ্কার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান। এর মাধ্যমে আলামত নষ্ট করা হয়ে থাকতে পারে বলেও তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।
বৃহস্পতিবার কুমিল্লা সার্কিট হাউসে তনু হত্যা নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় তিনি এ আশঙ্কা প্রকাশ করেন। এর আগে সকালে তিনি কুমিল্লা সেনানিবাসে তনুর লাশ পড়ে থাকার স্থানটি পরিদর্শন করেন।
কুমিল্লা সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনুকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়। কুমিল্লা সেনানিবাসের মধ্যেই তার লাশ পাওয়া যায়।
ড. মিজানুর বলেন, যে জায়গাটিতে তনুর নিথর দেহ পড়ে ছিল, সেই জায়গা পরিষ্কার করা হয়েছে। এটা অস্বাভাবিক। কারণ সেখানে আগে ঘাস ছিল, এমন ছবি আমাদের কাছে আছে। এটি কিন্তু প্রশ্নের উদ্বেগ করে।
তিনি বলেন, সেই জায়গাটির মাটি যদি তুলে নেওয়া হয় এবং নতুন মাটি ভরাট করা হয়ে থাকে, এর মাধ্যমে কিন্তু অপরাধের অনেক সাক্ষ্য বিনষ্ট হয়ে যেতে পারে। এটি তদন্ত কাজকে আরও জটিল করে দিতে পারে এ আশঙ্কা আমাদের মনে রয়েছে। তনু হত্যা একটি মর্মান্তিক ঘটনা। এর সঙ্গে জড়িত অপরাধীদের বিচার নিশ্চিত করতে হবে।
ড. মিজানুর বলেন, তনু হত্যার স্থান পরিদর্শনের পর এ রকম ধারণা সৃষ্টি হতে পারে যে, কিছু কিছু সাক্ষ্য বা প্রমাণ নষ্ট করা হয়ে থাকতে পারে। যদি এমন কিছু হয়ে থাকে, তাহলে যারা এটা করছে তাদেরকেই বিচারের আওতায় আনা উচিত বলে আমরা মনে করি। ন্যায় বিচারের স্বার্থেই এ কাজটি করা উচিত।

ড. মিজানুর রহমান বলেন, সেনানিবাসের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা মামলার তদন্তে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবেন বলে জানিয়েছেন। সার্কিট হাউসে মামলার বিষয়ে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের সঙ্গেও কথা বলেছি।

/বিটি/এজে/

লাইভ

টপ