Vision  ad on bangla Tribune

নিখোঁজের ৭ দিন পর মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার : দ্বিতীয় স্ত্রী আটক

পাবনা প্রতিনিধি১১:০১, এপ্রিল ০৩, ২০১৬

Pabna Monir Photo (02-04-2016)

 নিখোঁজের ৭ দিন পর পাবনা আলিয়া মাদ্রাসার (অনার্সে’র) এক ছাত্রের গলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত মনিরুজ্জামান মনির (২৭) সদর উপজেলার চরতারাপুর ইউনিয়নের তারাবাড়িয়া গ্রামের মাওলানা আব্দুল মজিদের ছেলে। এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে মনিরের দ্বিতীয় স্ত্রী রাবেয়া খাতুনকে (২২) আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার সন্ধ্যায় তার  দ্বিতীয় স্ত্রীর বাবার বাড়ি থেকে মনিরের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। আটক রাবেয়া গয়েশপুর ইউনিয়নের কামার গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে।

পাবনা সদর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) শেখ সেলিম জানান, মোবাইলে প্রেমের এক পর্যায়ে রাবেয়ার সঙ্গে মনিরের দ্বিতীয়বার বিয়ে হয়। বেশ কিছুদিন ধরে টাকা পয়সা নিয়ে মনির ও রাবেয়ার মধ্যে বিরোধ ও পারিবারিক কলহ চলছিল। ২৭ মার্চ রবিবার রাতে মনিরকে ডেকে পাঠায় রাবেয়া। এর পর থেকে মনির নিখোঁজ ছিল। মনির নিখোঁজ হওয়ায় পর তার বাবা আব্দুল মজিদ সদর থানায় একটি জিডি করেন। জিডির পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ শুক্রবার রাতে দ্বিতীয় স্ত্রী রাবেয়াকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায় মনিরকে হত্যার কথা স্বীকার করেন তিনি। তাকে হত্যা করে বাড়ি উঠানে মাটি চাপা দিয়ে রাখা হয়েছে বলে রাবেয়া পুলিশকে জানায়। তার স্বীকারক্তি অনুযায়ী শনিবার সন্ধ্যায় রাবেয়ার বাবার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মনিরের গলিত মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

/জেবি/

samsung ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ