বগুড়ায় পুরাতন প্রশ্নে এইচএসসি পরীক্ষা!

Send
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৫:২৯, এপ্রিল ০৪, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ০৫:৩১, এপ্রিল ০৪, ২০১৬

বগুড়ার সারিয়াকান্দি আবদুল মান্নান মহিলা কলেজ কেন্দ্রে রবিবার ২০১৫ সালের বাংলা প্রথম পত্রের নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্ন দিয়ে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পরীক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করেছেন বলে জানা গেছে।

এইচএসসি পরীক্ষা ২০১৬

কেন্দ্র সচিব অধ্যক্ষ শাহ আলম সাংবাদিকদের বলেছেন, যেসব পরীক্ষার্থী নিজেদের ভুলে পুরাতন সিলেবাসের প্রশ্নে পরীক্ষা দিয়েছে তাদের আবেদন করতে বলা হয়েছে।

জানা গেছে, ফুলবাড়ি গমির উদ্দিন স্কুল অ্যান্ড কলেজ ও নারচি মাজেদা রহমান স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রছাত্রীদের সিট পড়ে সারিয়াকান্দি আবদুল মান্নান মহিলা কলেজ কেন্দ্রে। ফুলবাড়ি গমির উদ্দিন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নিয়মিত শিক্ষার্থী আবু নাসের, ইমরান, তাসলিমা ও ইশিতা এবং নারচি মাজেদা রহমান স্কুল এন্ড কলেজের নিয়মিত শিক্ষার্থী আবু হানিফ ও সুভাষ চন্দ্র জানান, তারা ওই কেন্দ্রের ২০২ নম্বর কক্ষে গতকাল সকালে বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষায় অংশ নেন। নৈর্ব্যক্তিক পরীক্ষা দেবার পর দেখতে পান তাদের প্রশ্নটি ছিল গত বছরের সিলেবাস অনুসারে। জানাজানি হলে দেখা যায় ওই কক্ষের অন্তত ২০ জন ছাত্রছাত্রী ভুল প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দিয়েছেন। এর প্রতিবাদে তারা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন।

এ ব্যাপারে কেন্দ্র সচিব অধ্যক্ষ শাহ্ আলম সাংবাদিকদের জানান, ভুলক্রমে কেউ কেউ পুরাতন সিলেবাসের প্রশ্নপত্র নিলেও পরে পরিবর্তন করে দেওয়া হয়েছে। তবে কয়েকজন পরীক্ষার্থী ভুল প্রশ্নপত্র দিয়ে নৈর্ব্যক্তিক পরীক্ষা দিয়েছে। তাদেরকে আবেদন করতে বলা হয়েছে। এ ঘটনায় ফলাফল নিয়ে পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকরা চিন্তিত হয়ে পড়েছেন।

সারিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: মনিরুজ্জামান জানান, নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্নপত্র ছিল নতুন ও পুরাতন সিলেবাসের। ১০ জন শিক্ষার্থী নিজেদের গাফিলতির কারণে পুরাতন সিলেবাসের নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্ন নিয়ে পরীক্ষা দেয়। এখানে কেন্দ্র সচিবের কোনও দোষ নেই। তাদের কেন্দ্র সচিবের কাছে আবেদন করতে বলা হয়েছে। আবেদনটি বিবেচনার জন্য পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণের কাছে পাঠানো হবে।

/এনএস/

/আপ: এইচকে/

লাইভ

টপ