কালবৈশাখী ঝড়ে লণ্ডভণ্ড যশোর, আহত ৩০

যশোর প্রতিনিধি০৯:৪৮, এপ্রিল ০৬, ২০১৬

ঝড়ের আঘাত

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কালবৈশাখী ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে যশোর জেলার বিভিন্ন এলাকা। বিভিন্ন স্থানে গাছপালা ও বিদ্যুতের পিলার উপড়ে গেছে এবং ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া অন্তত ৩০জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দু’জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ঝড়ের পর সড়কে গাছ পড়ায় যশোর, ঝিনাইদহ, মাগুরা, বেনাপোল ও খুলনা মহাসড়কে যানচলাচল বন্ধ ছিল। রাতে জেলার বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ ছিল।

সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কালবৈশাখী ঝড় শুরু হয়। ঝড়ে যশোর শহরের নাজির শংকরপুরে নির্মাণাধীণ আইসিটি পার্কের নির্মাণ সামগ্রী পড়ে ৮ শ্রমিক আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। এছাড়া ঝড়ের কারণে যশোরের বিভিন্ন স্থান থেকে আরো ১৫ জন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার কল্লোল কুমার সাহা জানান, ২৩ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এদের মধ্যে ৫ জন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। আহতদের মধ্যে ২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এছাড়া যশোর শহরের বিভিন্ন সড়কে থাকা তোরণ ভেঙে পড়েছে। যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের অভ্যন্তরে বৈদ্যুতিক পিলারের ওপর গাছ পড়ায় হাসপাতালে বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ রয়েছে।

এদিকে, সদর উপজেলার বালিয়া ভেকুটিয়া, এড়েন্দা, আরবপুরসহ বিভিন্ন স্থানে গাছপালা পড়ে ঘরবাড়ি ভেঙে ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে।

যশোরের জেলা প্রশাসক ড. হুমায়ূন কবীর জানান, সব উপজেলায় ঝড়ে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। অভয়নগরে ৭জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের চিকিৎসায় সব উপজেলায় মেডিক্যাল টিম প্রস্তুত করতে সিভিল সার্জনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ঝড়ে বৈদ্যুতিক পিলার পড়ে যাওয়ায় পুরো জেলায় বিদ্যুৎ বন্ধ রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

 

 

/এসটি/

লাইভ

টপ