কুষ্টিয়ায় চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে গণধর্ষণ, এক ধর্ষক গ্রেফতার

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি২০:৩৪, এপ্রিল ০৬, ২০১৬

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় চতুর্থ শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক আবুল কালাম (৩২)কে আটক করেছে। তবে স্বপন নামে আরেক ধর্ষক পালিয়ে গেছে। বুধবার এ বিষয়ে ভেড়ামারা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

ধর্ষণভেড়ামারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) আতিকুর রহমান জানান, ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।  ঘটনায় জড়িত ফারাকপুর গ্রামের আইজউদ্দিনের ছেলে আবুল কালামকে আটক করা হয়েছে। আরেক ধর্ষক স্বপনকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
পুলিশ ও পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, মঙ্গলবার বিকেলে ওই ছাত্রী মকতবে পড়া শেষে বাড়ি ফেরার সময় পথে বৃষ্টি শুরু হয়। সে সময় স্টেশনারি দোকানদার কালাম বৃষ্টির কথা বলে ওই ছাত্রীকে তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর কালাম মোবাইল ফোনে তার আরেক বন্ধু স্বপনকে ডেকে আনে। এরপর কালাম ও স্বপন মিলে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। এসময় মেয়েটির চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে এলে পালিয়ে যায় স্বপন। তবে স্থানীয়রা হাতেনাতে কালামকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।
স্থানীয়রা স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানেই তার অবস্থার অবনতি হলে রাতেই তাকে কুষ্টিয়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
কুষ্টিয়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের অফিসার ডা. আনিসুর রহমান জানান, মেয়েটির প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছে। পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে ধর্ষণের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

 /এনএস/টিএন/

লাইভ

টপ