behind the news
IPDC  ad on bangla Tribune
 
Vision  ad on bangla Tribune

নিখোঁজের ৪ দিন পর ঘাটাইলে স্কুলছাত্রের গলাকাটা লাশ উদ্ধার, গ্রেফতার ২

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি১৫:৪০, এপ্রিল ০৭, ২০১৬

টাঙ্গাইলের সখীপুর থেকে নিখোঁজ হওয়ার চারদিন পর স্কুলছাত্র আতিক হাসানের (১৪) গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে ঘাটাইল উপজেলার দেওপাড়া পাহাড়িয়া এলাকা চাম্বলতলা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুই কিশোরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নিহত আতিক সখীপুর উপজেলার কুতুবপুর রওশন উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্র এবং ওই এলাকার দুবাইপ্রবাসী বিল্লাল হোসেনের ছেলে। এঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তার দুই বন্ধুকে আটক করেছে পুলিশ।  

লাশ উদ্ধারপুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, গত ২ এপ্রিল সকালে আতিক প্রতিদিনের মতো স্কুলে গিয়ে আর ফেরেনি। ৪ এপ্রিল সখীপুর থানায় আতিকের মা আয়েশা বেগম এ নিয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। ৫ এপ্রিল আতিকের বন্ধু ওয়াসিম ও নাহিদ রাসেলের কাছে আতিকের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন পায় গ্রামবাসী। সেই সূত্র ধরে ৫ এপ্রিল রাতে ওয়াসিম ও নাহিদ রাসেলকে গ্রামবাসী আটক করে সখীপুর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।
পরে তাদের দেওয়া তথ্য মতে ঘাটাইল উপজেলার দেওপাড়া পাহাড়িয়া চাম্বলতলা এলকার জঙ্গল থেকে আতিকের গলাকাটা লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ।
ওয়াসিম (১৫) কুতুবপুর রওশন উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্র এবং নাহিদ রাসেল (১৮) কুতুবপুর বিকে কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী। দুজনের বাড়িই সখীপুর উপজেলার কুতুবপুর গ্রামে।
ওসি জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আতিকের  দুই বন্ধুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের  জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। শিগগিরই ঘটনার সাথে জড়িত অন্যদের আটক করা সম্ভব হবে।
কুতুবপুর রওশন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শুকুর মামুদ বলেন, আতিক মেধাবী ছাত্র ছিল। তাঁর এমন মর্মান্তিক মৃত্যু কেউ মেনে নিতে পারছেন না।

/এইচকে/

Global Brand  ad on Bangla Tribune

লাইভ

IPDC  ad on bangla Tribune
টপ