বিটিভির জন্মোৎসব চ্যানেল আই প্রাঙ্গণে

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৫:৫৪, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:৩৫, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৬

বিটিভির বায়ান্ন বছর পূর্তি উৎসব চ্যানেল আই প্রাঙ্গণেবিটিভির বায়ান্ন বছর পূর্তি হলো আজ ২৫ ডিসেম্বর। এদিন বিটিভি ৫২ পার করে ৫৩ বছরে পা দিয়েছে। এ উপলক্ষে চ্যানেল আই প্রতিবারের মতো এবারও আয়োজন করেছে ভিন্নধর্মী উৎসবের।

চ্যানেল আই প্রাঙ্গণ চেতনা চত্বরে আয়োজিত ‘গানে গানে সকাল শুরু’ অনুষ্ঠানে যোগদিতে সকাল থেকে উপস্থিত হয়েছিলেন বিটিভির প্রবীন শিল্পী ও কলাকূশলীরা। এই পর্বে গান গেয়েছেন রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা। গান পরিবেশনের পাশাপাশি বিটিভির শুরু থেকে কাজ করা শিল্পী ও কলাকূশলীরা স্মৃতিচারণ করেন অনুষ্ঠানে এসে।

বিটিভির বায়ান্ন বছর পূর্তি উৎসব চ্যানেল আই প্রাঙ্গণেএতে উপস্থিত ছিলেন তথ্য সচিব মুর্তজা আহমেদ, বিটিভি’র মহাপরিচালক হারুন অর রশীদ, চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, পরিচালক ও বার্তাপ্রধান শাইখ সিরাজ, প্রকৃতি ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও চ্যানেল আই এর পরিচালক মুকিত মজুমদার বাবু, বিটিভির সাবেক মহাপরিচালক সৈয়দ সালাহউদ্দিন জাকী, বরেণ্য অভিনেতা সৈয়দ হাসান ইমাম, মিনারা জামান, ড. এনামুল হক, আতাউর রহমান, সুবর্ণা মুস্তাফা, আফজাল হোসন, সংগীতশিল্পী খালিদ হোসেন, আজাদ রহমান, ইন্দ্রোমোহন রাজবংশী, মোস্তফা জামান আব্বাসী, টিভি ব্যক্তিত্ব আলী ইমাম, বরকত উল্লাহ, মহিউদ্দিন ফারুক, কামাল লোহানী, আবদুল মান্নান, আনোয়ারা সৈয়দ হক, সম্পাদক আবেদ খান, আবদুন নূর তুষারসহ সাংস্কৃতিক অঙ্গণের গুণীশিল্পীরা।
বিটিভির বায়ান্ন বছর পূর্তি উৎসব চ্যানেল আই প্রাঙ্গণেচ্যানেল আইয়ের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে অনুষ্ঠানে আগত অতিথিরা বলেন, বিটিভি দেশের প্রত্যেকটি মানুষের টেলিভিশন, মানুষদের মনের কথা বলে ও বিনোদনের খোরাক জোগায় বিটিভি।
বিটিভির বায়ান্ন বছর পূর্তি উৎসব চ্যানেল আই প্রাঙ্গণেউল্লেখ্য, মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশের জন্মের পরের বছর সরকারি প্রতিষ্ঠান হিসেবে দেশ, মাটি ও মানুষের কথা বলার প্রত্যয় নিয়ে যাত্রা করে বাংলাদেশ টেলিভিশন। শুরুটা পাইলট প্রকল্প হিসেবে। সে সময় ডিআইটি ভবন থেকে স্বল্প সময়ের জন্য সাদাকালো সম্প্রচার হতো। তিন বছর পর স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে বিটিভি।
বিটিভির বায়ান্ন বছর পূর্তি উৎসব চ্যানেল আই প্রাঙ্গণে১৯৭৫ এর ৯ ফেব্রুয়ারি বিটিভি রামপুরায় স্থানান্তর হয়। ১৯৮০ সালে দর্শকদের রঙিন পর্দা উপহার দেয়ার মাধ্যমে নতুন যুগে পা রাখে বিটিভি। এখন বিটিভি ওয়ার্ল্ড এর মাধ্যমে দেশের বাইরেও নেটওয়ার্ক বিস্তৃত হয়েছে। বিনোদনের পাশাপাশি সরকারি গণমাধ্যম হিসেবে শুরু থেকেই বাংলাদেশ টেলিভিশনের অন্যতম লক্ষ্য তথ্য সম্প্রচার, শিক্ষার বিস্তার এবং উন্নয়নে ভূমিকা রাখা।
বিটিভির বায়ান্ন বছর পূর্তি উৎসব চ্যানেল আই প্রাঙ্গণেছবি: চ্যানেল আই

/এমএম/

লাইভ

টপ