‘সেই সুন্দরটাকে আমি ছুঁতে চাই’

Send
সুধাময় সরকার
প্রকাশিত : ০০:০১, জানুয়ারি ০৭, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৫১, জানুয়ারি ০৭, ২০১৭

অাঁখি আলমগীর। ছবি: সংগৃহীতএই বিষয়ে এখনও কোনও দফতর নেই। কিংবা নিকট অতীতে এটা নিয়ে কেউ জরিপও চালায়নি। তবে খালি চোখে কিছু বিষয় এতটাই মালুম করা যায়, যেটার জন্য আর ওসবের দরকার পড়ে না।

এই যেমন, গেল পাঁচ বছরে একটানা এক নম্বর স্টেজ পারফর্মারের তালিকায় ‘আটকে’ আছেন অাঁখি! অবশ্যই সেটা নারী বিভাগে। শো সংখ্যার বিচারে যৌথ (পুরুষ-নারী) হিসাব কষলেও ৩৬৫ দিনের যোগ-বিয়োগে সম্ভবত এগিয়ে থাকবেন তিনিই।
এ নিয়ে ‘টুঁ’ শব্দ করার কোনও সুযোগ কারও আছে কি? নেই তো!
কণ্ঠ-গ্ল্যামার-যোগাযোগ-জনপ্রিয়তা এবং পারফর্মেন্স- সবমিলিয়ে দেশীয় সংগীতের বুঝি চোখের মণি হয়ে আছেন আঁখি। গেল শীতের মতো এই শীতেও কুয়াশা নামার পর থেকে তার আর ঘরে ফিরে দম ফেলারও ফুরসত নেই।
একই দিনে কক্সবাজার থেকে কশবা (সিলেট)! মাইক্রো-বিমান-লঞ্চে; ছুটছেন তো ছুটছেনই, দিগ্বিদিক। মাঝে মধ্যে তো একদিনেই তিনটে শো হয়ে যাচ্ছে!
অাঁখি আলমগীর। ছবি: সংগৃহীতএরমধ্যেই হাসিমুখে গাইতে গাইতে কোমরে হাত বাঁকিয়ে নেচেও দিচ্ছেন জনসমুদ্রকে সামনে রেখে, শো’তে ক্লান্তিহীন।
তার ভাষায়, ‘যতক্ষণ বাঁচি, বাঁচতেই চাই; ঠিক বাঁচার মতো। জীবনটাকে আনন্দময় করতে চাই, চারপাশটাকেও আনন্দে রাখতে চাই। দুঃখের কারণ হতে চাই না। জেনেছি জীবন অনেক সুন্দর, সেই সুন্দরটাকে আমি ছুঁতে চাই।’
আজ, ৭ জানুয়ারি তারই জন্মদিন। শীত আসার আগেই খুব সচেতনভাবে এই দিনটিকে তুলে রেখেছিলেন নিজের জন্য। নিজের বলতে, নিজেদের জন্য।
তার ভাষায়, ‌‘প্রতিদিন শো করি। শুধু এই দিনটা ঘরের জন্য আগলে রেখেছি। বিশেষ করে আজ সারাদিন আমার দুই কন্যার জন্য। আমার শো না থাকা মানে ওদের ঈদ আনন্দ। আজ সেই আনন্দের উষ্ণতা নিতে চাই। এর বাইরে জন্মদিনের বিশেষ কোনও আয়োজন নেই। ওরাই আমার বিশেষ।’
গুণী অভিনেতা আলমগীর ও কবি খোশনূর কন্যা আঁখি’র বিনোদন জগতে শুরুটা হয় শৈশবে, অভিনয় দিয়ে! ১৯৮৪ সালে ‘ভাত দে’ ছবিতে অভিনয় করেন। জীবনের এই একটিমাত্র ছবি দিয়েই তিনি জয় করে নিয়েছিলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।
পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে অাঁখিতবে অভিনয়ে নিয়মিত থাকেননি। চলচ্চিত্রে গান করতে গিয়ে সেখানে জনপ্রিয়তা পান এবং গানেই থিতু হয়ে যান। ১৯৯৭ সালে প্রকাশিত হয় তার প্রথম একক অ্যালবাম ‘প্রথম কলি’।
এরপর ১৭টি একক ছাড়াও শতাধিক দ্বৈত ও মিশ্র অ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে- ‘বিষের কাঁটা’, ‘চোখের ভাষা’, ‘পিয়াসী অন্তর’, ‘স্বপ্নের রাজকুমার’, ‘তোমার কাছে’, ‘ভালোবাসা উড়িয়ে দিলাম’, ‘তুমি আর আমি’, ‘চোখ দিয়ে ছোঁব তোমায়’ প্রভৃতি।
মডেল হয়েছেন একাধিক পণ্যের। আর শৈশবের নাচ-অভিনয় অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়েছেন নিজের কিছু জমকালো মিউজিক ভিডিওতে।
সফল এই সংগীত তারকার জন্মদিনে বাংলা ট্রিবিউনের পক্ষ থেকে অনেক শুভেচ্ছা।
কিন্তু বয়সটা তো আর জানা হলো না! যদি জানতে চাই, কত হলো এবার? পাঠক-শ্রোতারা খুব জানতে চায়...। জবাবেও খুব সচেতন!
অাঁখি বললেন, ‘যারা জানতে চায় তারা আমার আসল ফ্যান না! তাদের বলে দেবেন, শিল্পীদের বয়স সবুজেই আটকে থাকে। বাড়ে না, বরং মাঝে মাঝে কমে!’
সংগীত সদস্যদের সঙ্গে অাঁখি। ছবি: সংগৃহীত/এমএম/

লাইভ

টপ