সুমন বললেন, ভালো আছি

Send
বিনোদন ডেস্ক১৮:১৭, এপ্রিল ২০, ২০১৭

বেশ কিছুদিন ধরে গুরুতর অসুস্থ অর্থহীন ব্যান্ডের প্রধান ও গায়ক সুমন। আজ (২০ এপ্রিল) ভোরে ব্যাংককের একটি হাসপাতালে তার শরীরে অস্ত্রোপচার হয়। এর ১১ ঘণ্টা পর এক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে তিনি নিজের শারীরিক সুস্থতার কথা উল্লেখ করেন। জানান, অপারেশন সফল। তিনি ভালো আছেন।

সুমন/ ছবি: সাজ্জাদ হোসেন।সুমন ব্যাংকক নার্সিং হোম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। জানা যায়, অস্ত্রোপচার করে সুমনের সংক্রমিত পাকস্থলী শরীর থেকে আলাদা করা হয়েছে।
এদিকে গতকাল দেওয়া সে স্ট্যাটাসে সুমন লেখেন, ‘আগামীকাল (২০ এপ্রিল) ভোর ৫টা ৩০ মিনিটে ব্যাংককে একটা স্টোমাক সার্জারি হবে। আমার পুরো পাকস্থলী কেটে ফেলে দেবেন ডাক্তার। এছাড়া আমাকে সুস্থ করার আর কোনও উপায় নাই।’
বেজবাবা হিসেবে খ্যাত এ গায়ক এর আগে বহুবার অস্ত্রোপচারের টেবিলে গেছেন। প্রতিবারই দৃঢ় আত্মবিশ্বাস নিয়ে ফিরেছেন। অ্যালবাম ও স্টেজ শো’তে পুরোদমে পরিবেশনায় অংশ নিয়েছেন। এ পর্যন্ত তার শরীরে ১৫টির মতো অস্ত্রোপচার হয়েছে। সর্বশেষ গত মাসে একটি অপারেশন হয়।
সুমন মূলত ক্যানসারের রোগী। ২০১২ সালের দিকে তার মেরুদণ্ডে প্রথম ক্যানসার হয়েছিল। এরপর মস্তিষ্ক, গলা, পাকস্থলী আর কিডনিতেও ছড়িয়ে যায়। বর্তমানে পাকস্থলী মারাত্মক সংক্রমিত হওয়ায় চিকিৎসকরা এটি কেটে ফেলার সিদ্ধান্ত নেন।

শুনুন সুমন ও অর্থহীনের একটি অসাধারণ গান:


গতকালই (১৯ এপ্রিল) সুমন তার বর্তমান অসুস্থতা নিয়ে ফেসবুকে বিশদ লেখেন। জানান অস্ত্রোপচার পরবর্তী সময়ের সম্ভাব্য সমস্যার কথাও। লেখেন, ‘১৯ তারিখ (অস্ত্রোপচারের পর) থেকে সারা জীবনের জন্য আমার নরমাল খাওয়া-দাওয়া বন্ধ! প্রথম মাসে শুধু তরল খেতে হবে। তারপরের ২ মাস অনেক নরম খাবার খেতে হবে। সার্জারির তিন মাস পর থেকে আমি নরমাল খাবার প্রতিবেলা এক টেবিল চামচ পরিমাণ খেতে পারবো! সারাজীবন নিউট্রিশন সাপ্লিমেন্ট খেয়ে চলতে হবে। আমি আমার জীবনের বেশিরভাগ সময়েই অনেক মোটা ছিলাম। ওজন ছিল ১৭৪ কেজি! কারণ আমি খাবার অনেক ভালোবাসি, সুতরাং অনেক খেতাম। জীবনে যেটা খেতে ইচ্ছা করেছে সেটাই খেয়েছি। তাই এই সার্জারি নিয়ে খুব একটা দুঃখ নেই। আর খেতে না পারলেও সেটা পুষিয়ে নিয়েছি! আমি অসম্ভব ভাগ্যবান একজন মানুষ। আমার ফ্যামিলির সবাই আমার জন্য অনেক করেছেন এবং এখনও করে যাচ্ছেন। তাদের ছাড়া আমি এতদিন মনে হয় বাঁচতাম না! এবং অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাদের সবাইকে; আমার দুঃসময়ে পাশে থাকার জন্য! আবার দেখা হবে কোনও এক কনসার্টে! সবাই ভাল থাকবেন। এত তাড়াতাড়ি হারিয়ে যাওয়ার জন্য আসিনি! সুস্থ হয়ে আসি! তারপর স্টেজ কাঁপবে!’
/এম/এমএম/

লাইভ

টপ