নেপালে পুরস্কার জিতলো ‌‘কমলা রকেট’ ও ‘মীনালাপ’

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৯:৪৬, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:৩০, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৯

মীনালাপ ছবির দৃশ্যদ্বিতীয়বারের মতো নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে হয়ে গেল পাঁচ দিনব্যাপী ‘নেপাল আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব’। যেখানে  প্রতিযোগিতা বিভাগে ‘স্পেশাল জুরি’ পুরস্কার পেয়েছে নূর ইমরান মিঠুর ছবি ‘কমলা রকেট’। আর শ্রেষ্ঠ আন্তর্জাতিক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘মাউন্ট এভারেস্ট’ পুরস্কার জিতে নেয় সুর্বণা সেঁজুতি তুসির ‘মীনালাপ’। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ইমপ্রেস টেলিফিল্মস।
এছাড়াও ফিচার ফিল্মের জন্য উৎসবের সেরা ছবি ‘গৌতম বৌদ্ধ অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছে সিঙ্গাপুরের ‘অ্যা ল্যান্ড ইমাজিনড’।

২১ ফেব্রুয়ারি থেকে কাঠমান্ডুতে বসেছিলো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্রটি। যা শেষ হয়েছে গতকাল (২৫ ফেব্রুয়ারি)। এতে দেখানো হয় দেশ বিদেশের বেশকিছু পূর্ণদৈর্ঘ্য ও স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র।কমলা রকেটের দৃশ্য

কথাসাহিত্যিক শাহাদুজ্জামানের ‘মৌলিক’ ও ‘সাইপ্রাস’ নামের দুটি গল্প অবলম্বনে ‘কমলা রকেট’-এর চিত্রনাট্য করেছেন শাহাদুজ্জামান ও মিঠু। ‘কমলা রকেট’ মূলত একটি স্টিমারের নাম। এই স্টিমারটিই পুরো বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করে। ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন তৌকীর আহমেদ। এতে দালাল চরিত্রে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম। এছাড়াও অন্যান্য চরিত্রে আছেন জয়রাজ, সামিয়া সাঈদ, সেওতি, ডমিনিক গোমেজ, বাপ্পা শান্তনু, সুজাত শিমুল, শহীদুল্লাহ সবুজ, আবু রায়হান রাসেল প্রমুখ।

ব্যতিক্রমী এক গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে বাংলাদেশি নির্মাতা সুবর্ণা সেঁজুতি টুসির স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‌‘মীনালাপ’।
পশ্চিমবঙ্গের একটি প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে পুনে শহরে আসা গার্মেন্টসে কর্মরত এক বাঙালি দম্পতির অনাগত সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার আগ মুহূর্তগুলো চলচ্চিত্রটিতে উঠে এসেছে। তবে তা একটু অন্যভাবে। আর এটি ছিল চমকপ্রদ।

২৮ মিনিট দৈর্ঘ্যের চলচ্চিত্র ‘মীনালাপ’-এর কাহিনিটি শহুরে নিঃসঙ্গ জীবনের মুহূর্তগুলো নিয়ে। ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন ইন্সটিটিউট অব ইন্ডিয়ার প্রযোজনায় চলচ্চিত্রটি পরিচালনার পাশাপাশি চিত্রনাট্যও করেছেন সুবর্ণা সেঁজুতি টুসি। ছবিটির প্রধান চরিত্রগুলোতে আছেন তিতাস দত্ত, প্রমিত দত্ত, বিবেক কুমার ও দেভাস দীক্ষিত।

/এমআই/এম/

লাইভ

টপ