অন্তর্বাস ছাড়াই ফটোশুট করতে হয়েছিল কঙ্গনাকে

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:২৮, মার্চ ২৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৩৭, মার্চ ২৯, ২০১৯

বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রনৌত এখন প্রতিষ্ঠিত। নামজাদা করণ জোহর, হৃতিক রোশন, রণবীর কাপুর ও আলিয়া ভাটের মতো তারকাদের বিরুদ্ধে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ তুলেও টিকে আছেন বেশ।
কিন্তু একসময় তারও পায়ের তলার মাটি শক্ত ছিল না। সাফল্য হাতের মুঠোয় ধরা দেওয়ার আগে তাকেও কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে। সেই সময়ের একটি ঘটনা তুলে ধরেছেন তিনি।
‘সিট উইথ হিটলিস্ট’ নামের চ্যাট শোতে ৩২ বছর বয়সী এই তারকা জানান, বাবা-মা বরাবরই শোবিজ ও বড় শহরে থাকার ব্যাপারে নিরুৎসাহিত ও সতর্ক করেছেন। কারণ মেয়েদের যৌন হেনস্তার শিকার হওয়ার কথা শুনেছিলেন তারা। তাই মুম্বাইয়ে মেয়ের স্থায়ী হওয়া নিয়ে ভীত-সন্ত্রস্ত ছিলেন উভয়ে।
একসময় প্রায় একই ফাঁদে পড়তে যাচ্ছিলেন বলে দাবি কঙ্গনার। তার অভিযোগ, ‘‌‘ব্যাপারটা এমন ছিল যে, মানুষের সঙ্গে পরিচয় হলে গাইড ও সহায়তা করার প্রতিশ্রুতি দিতো। কিন্তু পরে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছিল আমাকে। তখন পেহলাজ নিহালানি ‘আই লাভ ইউ বস’ নামের একটি ছবির প্রস্তাব দেন আমাকে। এতে কাজ করার অংশ হিসেবে একটি ফটোশুটের জন্য তারা আমাকে রোব (লম্বা ঢিলেঢালা বহির্বাস) পরতে দেন। কিন্তু শর্ত দিলেন, কোনও অন্তর্বাস পরা যাবে না। তাই অন্ধকার থেকে বেরিয়ে পা খোলা অবস্থায় শো-গার্ল পোজ দিতে হবে আমাকে।’
ঘটনাটি শেয়ার করতে গিয়ে কঙ্গনা আরও বলেন, ‘মধ্যবয়সী বসকে কাবু করবে এমন এক তরুণীর চরিত্র ছিল এটি। ফলে এতে হালকা মেজাজের অশ্লীলতা প্রয়োজন। এ কারণে কাজটা না করার সিদ্ধান্ত নিই। মনে হয়েছিল আমার বাবা-মা ঠিক এমন ঘটনারই আশঙ্কা করতেন। ফটোশুটটা আমি করেছিলাম, কিন্তু এরপর আর তাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখিনি। আমার মোবাইল নম্বর বদলে ফেলেছিলাম।’
২০০৬ সালে এ ঘটনার কিছুদিন পর ক্যারিয়ারের প্রথম ছবি ‘গ্যাংস্টার’ আসে তার দুয়ারে। অনুরাগ বসুর পরিচালনায় এতে দারুণ অভিনয়ের সুবাদে ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডসে সেরা নবাগতা অভিনেত্রীর পুরস্কার জেতেন তিনি।
কঙ্গনাকে সবশেষ ‘মনিকর্নিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি’ ছবির মাধ্যমে বড় পর্দায় দেখা গেছে। এতে রানি লক্ষ্মীবাঈ চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। এখন তার হাতে আছে ‘মেন্টাল হ্যায় কেয়া’, অশ্বিনী আইয়ার তিওয়ারির ‘পাঙ্গা’ ও জয়ললিতার বায়োপিক।
সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

/জেডএল/এমএম/

লাইভ

টপ