কান উৎসব উদ্বোধন করবে জীবন্ত লাশ!

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ০০:০৮, এপ্রিল ১১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:০৭, এপ্রিল ২২, ২০১৯

‘দ্য ডেড ডোন্ট ডাই’ ছবির পোস্টারকান চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী দিনে কোন ছবি দেখানো হবে তা জানার বাড়তি কৌতূহল থাকে দুনিয়াজুড়ে। কারণ, এটি বেশ সম্মানের। এবার ৭২তম আসরের উদ্বোধনী ছবি নির্বাচিত হয়েছে মার্কিন পরিচালক জিম জারমাশের ‘দ্য ডেড ডোন্ট ডাই’। উৎসবের সর্বোচ্চ পুরস্কার স্বর্ণ পামের জন্য প্রতিযোগিতা বিভাগে লড়বে এটি।
আগামী ১৪ মে দক্ষিণ ফরাসি উপকূলের শহর কানের পালে দে ফেস্তিভাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে ‘দ্য ডেড ডোন্ট ডাই’ ছবির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হবে। একইদিন এটি ফ্রান্সে মুক্তি পাবে। ১৪ জুন থেকে আমেরিকাসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশের প্রেক্ষাগৃহে দেখা যাবে এই ছবি।
‘দ্য ডেড ডোন্ট ডাই’-এর প্রেক্ষাপট সেন্টারভিল নামের ছোট্ট একটি শহর। সেখানে হঠাৎ চোখে পড়ে। ভুতুড়ে সব ব্যাপার। দিনের আলোর স্থায়িত্ব অনিশ্চিত হয়ে যায়। চাঁদ কখনও স্বাভাবিকের চেয়ে বড়-ছোট হতে থাকে। প্রাণীরা অস্বাভাবিক আচরণ দেখায়। কেউই এসবের কারণ জানে না। বিজ্ঞানীরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন। কেউ বুঝতে পারেন না শহরে মহামারির মতো ছড়িয়ে পড়ছে বিপজ্জনক জম্বিরা। সমাধি থেকে বেরিয়ে জীবন্ত লাশ হয়ে জীবিতদের ওপর আক্রমণের উৎসব শুরু করে তারা! কিন্তু পিছপা হলে তো চলবে না। শহরের বাসিন্দারা তাই বেঁচে থাকার লড়াইয়ে নামে।
জম্বি বলে ছবিতে শুধু ভীতিকর আবহ থাকছে তা কিন্তু নয়, বরং রসালো আমেজে সাহসিকতার গল্প বলা হয়েছে ছবিটিতে। বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন বিল মারে, অ্যাডাম ড্রাইভার, টিল্ডা সুইনটন, ক্লোয়ি সেভিনি, স্টিভ বুসেমি, ড্যানি গ্লোভার, ক্যালেব লান্ড্রি জোন্স, রোসি পেরেজ, ইগি পপ, সেলেনা গোমেজ, সারা ড্রাইভার, অস্টিন বাটলার, লুকা সাবাত, এস্টার বালিন্ত, ক্যারোল কেন ও টম ওয়েটস।
মুক্ত নির্মাতা জিম জারমাশের ১৩তম পূর্ণদৈর্ঘ্য কাহিনিচিত্র ‘দ্য ডেড ডোন্ট ডাই’। তার বিখ্যাত নির্মাণের তালিকায় আছে ওয়েস্টার্ন ধাঁচের ‘ডেড ম্যান’, সামুরাই ক্রাইম ঘরানার ‘গোস্ট ডগ: দ্য ওয়ে অব দ্য সামুরাই’, ভ্যাম্পায়ার ফিল্ম ‘অনলি লাভারস লেফট অ্যালিভ’, ‘নাইট অন আর্থ’।
১৯৮৪ সালে ‘স্ট্রেঞ্জার দ্যান প্যারাডাইস’ ছবির জন্য কান উৎসবে সেরা নবীন পরিচালক হিসেবে ক্যামেরা দ’র পুরস্কার জেতেন জিম জারমাশ। সেটি ছিল আমেরিকার নতুনধারার মুক্ত চলচ্চিত্রের ইতিহাসে একটি ল্যান্ডমার্ক। ১৯৯৩ সালে ‘কফি অ্যান্ড সিগারেটস: সামহোয়্যার ইন ক্যালিফোর্নিয়া’ বানিয়ে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের পাম দ’র জেতেন তিনি। ২০০৫ সালে তার ‘ব্রোকেন ফ্লাওয়ার্স’ কানের গ্রাঁ প্রিঁ জিতে নেয়।
সবশেষ ২০১৬ সালে কানের প্রতিযোগিতা বিভাগে স্থান পায় জিম জারমাশের ‘প্যাটারসন’। একই আসরে মিডনাইট স্ক্রিনিংসে ছিল রকতারকা ইগি পপ ও তার ব্যান্ড দ্য স্টুজেসের ওপর তার বানানো সংগীতনির্ভর প্রামাণ্যচিত্র ‘গিমে ডেঞ্জার’।
ট্রেলার:



৭২তম কান উৎসবের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে আর কোন ছবিগুলো থাকছে সেই তালিকা আয়োজকরা ঘোষণা করবেন আগামী ১৮ এপ্রিল। এবার প্রতিযোগিতা বিভাগে বিচারকদের প্রধান হিসেবে থাকছেন দু’বারের অস্কারজয়ী মেক্সিকান নির্মাতা আলেহান্দ্রো গঞ্জালেজ ইনারিতু। আগামী ২৫ মে তিনিই স্বর্ণপাম জয়ী ছবির নাম ঘোষণা করবেন। উদ্বোধনী ও সমাপনী আয়োজন সঞ্চালনা করবেন ফরাসি অভিনেতা-নির্মাতা এদুয়ার্দ বেয়া।

/জেএইচ/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ