বহাল থাকছে ‌‘এলআরবি’, পরিবর্তন আসতে পারে লাইনআপে!

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৬:৪৭, এপ্রিল ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৩৬, এপ্রিল ১৭, ২০১৯

৫ এপ্রিল এলআরবি’র জন্মদিনে যুক্ত হলেন বালামএপ্রিল মাসজুড়ে ঝড় বয়ে যাচ্ছে এলআরবি ভক্তদের মনে। মাত্র কয়েক দিনের ব্যবধানে দলটিতে নতুন গায়কের অন্তর্ভুক্তি, আইয়ুব বাচ্চুর পরিবারের আপত্তি ও সম্মতি এবং এলআরবি’র নাম বদলে ফেলার মতো ঘটনা ঘটে!

সর্বশেষ জানা গেল, থেমে যাচ্ছে না প্রবাদপ্রতিম এ দলটি। আবারও এলআরবি নামেই সামনে আসবেন এর পুরনো সদস্যরা। এগিয়ে নিয়ে যাবেন আইয়ুব বাচ্চুর সৃষ্টি ও নাম। তবে এই পর্যায়ে লাইনআপে খানিক পরিবর্তন আনার ইঙ্গিতও মিলেছে।
১৭ এপ্রিল দুপুরে ব্যান্ডটির বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে বাংলা ট্রিবিউন-এর সঙ্গে কথা বলেন এর ম্যানেজার ও সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার শামীম আহমেদ। তিনি জানান, আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে আহনাফ তাজোয়ারের সর্বশেষ বিবৃতি ও দেশজুড়ে নানা প্রতিক্রিয়াকে আমলে নিয়েছেন তারা। তাই তাদের সিদ্ধান্ত থেকে ফিরে এসেছেন। বালাম অ্যান্ড দ্য লিগ্যাসি নয়, এলআরবি নামেই থাকছেন তারা।
তিনি বলেন, ‘ব্যান্ডের নাম এলআরবি-ই থাকছে। বাচ্চু ভাইর পরিবারের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে আমাদের সঙ্গে। মাঝে কিছু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। সেসব কাটিয়ে উঠেছি আমরা। আমাদের অন্যতম সদস্য মাসুদ ঢাকার বাইরে আছেন। তিনি ঢাকায় এলে শিগগিরই আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দেব। এলআরবি নিয়ে আমাদের আরও কিছু প্ল্যান আছে। তবে তার আগে এটুকু নিশ্চিত, আমরা এলআরবি নামেই থাকছি।’
শামীম আহমেদের কাছে জিজ্ঞাসা ছিলো বালামের বিষয়ে। ব্যান্ডটির ভোকাল হিসেবে বালামই থাকছেন? নাকি পরিবর্তন হচ্ছে। কারণ, এলআরবি ভক্তদের বেশিরভাগের পক্ষ থেকেই এ নিয়ে আপত্তি রয়েছে।
এ প্রসঙ্গে শামীম আহমেদ বলেন, ‘দেখুন বালাম কিন্তু আমাদের (এলআরবি সদস্য) উপকার করার জন্যই এগিয়ে এসেছেন। তাকে যারা চেনেন তারা জানেন, তিনি কতটা নির্ভেজাল একজন মানুষ। শিল্পী হিসেবে তার নিজেরও ভালো পরিচিতি আছে। সব ভুলে তিনি আমাদের সঙ্গে এসেছেন বাচ্চু ভাইকে সম্মান করে। তাছাড়া একটা বিষয় একটু ভাবুন, বাচ্চু ভাই চলে যাওয়ার পর আমরা ব্যান্ড মেম্বাররা গত ছয়টা মাস কেমন করে বেঁচে আছি। মানসিক এবং আর্থিকভাবে আমাদের অবস্থাটা একটু ভাবুন। এলআরবি’র বাইরে আমাদের আর কোনও দুনিয়া ছিলো না, এখনও নাই। সেই অবস্থা থেকে আমরা চেয়েছি বালামকে নিয়ে এগিয়ে যেতে। কিন্তু হিতে বিপরীত হলো। যাই হোক, মাসুদ ঢাকায় ফিরলে আমরা পুরো বিষয়টা নিয়ে আবার বসবো। নিশ্চয়ই একটা সুন্দর পথ বের হবে।’ 

তাজোয়ার (বামে), মাঝে তার বিবৃতি এবং ডানে আইয়ুব বাচ্চু

দেশের শীর্ষ ব্যান্ড ‘এলআরবি’র সঙ্গে গত ৫ এপ্রিল যুক্ত হন সংগীতশিল্পী বালাম। তার এই অন্তর্ভুক্তি নিয়ে চলছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। আইয়ুব বাচ্চুর ভক্তরা কোনওভাবেই দলটির মূল ভোকাল হিসেবে মেনে নিতে পারছেন না বালামকে।
সেই আগুন উত্তাপে ঘি ঢেলে দিলো গত ১৪ এপ্রিল মধ্যরাতে সংগীতভিত্তিক টিভি চ্যানেল গানবাংলার আয়োজনে ‘বালাম অ্যান্ড দ্য লিগ্যাসি’ ব্যান্ডের অভিষেক অনুষ্ঠান। যেখানে জানানো হয়, আইয়ুব বাচ্চুর পরিবারের আপত্তির কারণে এলআরবি নামটি স্থগিত করা হলো! এখন থেকে এলআরবি’র গান পরিবেশিত হবে বালাম অ্যান্ড দ্য লিগ্যাসি নামে! তারপরই ফেসবুকজুড়ে উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ে।
অনেকেই এজন্য আইয়ুব বাচ্চুর স্ত্রী ও দুই সন্তানকে দোষারোপ করেন। নতুন নামকরণের দায়ে দোষ পড়ে বালামের কাঁধেও।
তবে এমন ঘটনার একদিনের মাথায় (১৬ এপ্রিল) আইয়ুব বাচ্চুর একমাত্র ছেলে আহনাফ তাজোয়ার আইয়ুব স্পষ্ট ভাষায় জানান, এলআরবি নাম নিয়ে তার ও তার পরিবারের কোনও আপত্তি নেই।
তার ভাষ্যটি এমন, ‘এলআরবি অথবা বালাম অ্যান্ড দ্য লিগ্যাসি (তারা এখন এই নামে গান করতে চাইছেন) সদস্যদের বলতে চাই, তারা চাইলে এলআরবি নামে গান করতে পারেন। এ নিয়ে আমাদের কোনও বাধা নেই। প্রাথমিকভাবে (গত ৫ এপ্রিল) তারা যেভাবে এলআরবি নামে গান করতে চেয়েছিলেন, সেভাবেই গান-বাজনা চালিয়ে যেতে পারেন। তাদের জন্য শুভকামনা রইলো। আশা করি, তারা সফল হবেন ও বাবার সংগীতকে নিয়ে এগিয়ে যাবেন। আমার চাওয়া, এলআরবি সব সাফল্য অর্জন করবে।’
এমন ঘোষণার পরপরই ব্যান্ডের সদস্যরা তাদের সিদ্ধান্তের পরিবর্তন আনলেন। বহাল থাকলো এলআরবি আর প্রত্যাহার করা হলো বালাম অ্যান্ড দ্য লিগ্যাসি।

/এম/এমএম/এমওএফ/এমএমজে/

লাইভ

টপ