ফিলিপাইনের নৃত্য উৎসবে পূজা সেনগুপ্ত

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৫:১০, এপ্রিল ২৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৪১, এপ্রিল ২৪, ২০১৯

পূজা সেনগুপ্ত

আবারও আয়োজন হতে যাচ্ছে বিশ্বসেরা নাচিয়েদের বৃহত্তম আসর ‘ড্যান্স এক্সচেঞ্জ: ফিলিপাইন আন্তর্জাতিক নৃত্য উৎসব ২০১৯’।









এ উৎসবে অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ পেয়েছেন বাংলাদেশের তুরঙ্গমীর আর্টিস্টিক ডিরেক্টর পূজা সেনগুপ্ত। ফিলিপাইন সরকারের পক্ষ থেকে তুরঙ্গমীকে দেওয়া সরাসরি আমন্ত্রণপত্রে জানানো হয়, সে দেশের রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে আন্তর্জাতিক নৃত্য দিবস উপলক্ষে প্রতি বছরের মতো এবারও চলমান এপ্রিল মাসের শেষ সপ্তাহটিকে ‘জাতীয় নৃত্য সপ্তাহ’ ঘোষণা করা হয়েছে।
এ উপলক্ষে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পেশাদার নাচের দলের সঙ্গে বাংলাদেশের তুরঙ্গমীর ডিরেক্টর পূজা সেনগুপ্তকেও আমন্ত্রণ জানিয়েছে ফিলিপাইন সরকার।
এবারের উৎসবের প্রতিপাদ্য বিষয়, ‘নৃত্যের মধ্য দিয়ে সাংস্কৃতিক সংযোগ’।
২৬ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত পাঁচ দিন এই উৎসব চলবে। এতে বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী ধামাইল নাচের ওপর বিশেষ কর্মশালা পরিচালনা করবেন পূজা সেনগুপ্ত। এছাড়া একাধিক মূলধারার অনুষ্ঠানে অংশ নেবে তুরঙ্গমীর শিল্পীরা।
বাংলা ট্রিবিউনকে এমনটাই জানান তুরঙ্গমী রেপার্টরি ড্যান্স থিয়েটারের যুগ্ম প্রচার সম্পাদক জয়তী রায়।
তিনি আরও জানান, গত বছর ড্যান্স এক্সচেঞ্জ উৎসবে পূজা সেনগুপ্ত বাংলাদেশের আরতি নাচের ওপর কর্মশালা পরিচালনা করেছিলেন, যেখানে অংশ নিয়েছিলেন প্রায় এক হাজার ফিলিপিনো নৃত্য প্রশিক্ষক।
এবার পূজা সেনগুপ্তর নেতৃত্বে ২৫ এপ্রিল বৃহস্পতিবার তুরঙ্গমীর তিন সদস্যের দল ফিলিপাইন যাচ্ছে। দলের অন্য দু’জন সদস্য হলেন সুস্মিতা লোপা ও লোপা অধিকারী।


মঞ্চে পূজা সেনগুপ্তবিশ্বব্যাপী বাংলাদেশের নাচ ও সংস্কৃতির প্রচার-প্রসার এবং বাংলাদেশে নাচের অঙ্গনে পেশাদারিত্ব প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে তুরঙ্গমী। আন্তর্জাতিক এই আসরে তুরঙ্গমীর অংশগ্রহণে পৃষ্ঠপোষকতা করছে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেড ও এসএমসি’র ব্র্যান্ড জয়া।
পূজা সেনগুপ্ত বললেন, ‘গত বছরের সফল অংশগ্রহণের ধারাবাহিকতায় দ্বিতীয়বারের মতো এই বিশাল শিল্পযজ্ঞের অংশ হতে পেরে আমরা আনন্দিত।’


/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ