লাইভ অনুষ্ঠান ফাঁসিয়ে দিলেন আরমান আলিফ

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৪:০০, মে ০২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:০৪, মে ০২, ২০১৯

আরমান আলিফসিডিউল ফাঁসানোর রীতি থেকে অনেক আগেই সরে এসেছেন দেশের উল্লেখযোগ্য শিল্পীরা। বিশেষ করে শুটিংয়ের পাশাপাশি লাইভ অনুষ্ঠানের সংখ্যা বৃদ্ধি এবং শিল্পীদের মধ্যে পেশাদার মনোভাব তৈরি হওয়ার কারণে এমনটা সম্ভব হয়েছে। অথচ বছর পাঁচেক আগেও শিল্পীদের সিডিউল ফাঁসানোর ঘটনা ছিল নিত্যনৈমিত্তিক বিষয়।
ঠিক এমন পর্যায়ে এসে সিডিউল ফাঁসানোর মতো পুরনো ঘটনা নতুন করে ঘটলো। তাও আবার তরুণ আলোচিত শিল্পী আরমান আলিফের সূত্র ধরে। জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (২ মে) সকালে বাংলাভিশনের নিয়মিত সরাসরি অনুষ্ঠান ‘সকাল বেলার রোদ্দুর’-এর অতিথি ছিলেন ‘অপরাধী’ খ্যাত সংগীতশিল্পী আরমান আলিফ। গতকাল (১ মে) রাত পর্যন্ত আরমান আলিফ চ্যানেল কর্তৃপক্ষকে আজ (২ মে) সকালে নির্দিষ্ট সময়ে টিভি স্টেশনে হাজির হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

কিন্তু সকাল থেকে তিনি আর কোনও ফোন ধরছিলেন না। কোনোরকম অবহিতকরণ ছাড়াই অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত থাকেন।
অনুষ্ঠানটির প্রযোজক আরিফ হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আরমান আলিফের সাথে অনুষ্ঠানের অতিথি হওয়ার বিষয়ে আমাদের চূড়ান্ত ও শেষ কথা হয় ১ মে রাত ৮টা ৩০ মিনিটে। কথা ছিল আজ (২ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় বাংলাভিশনে উপস্থিত থাকবেন তিনি। ১১টা ৫ মিনিটে লাইভ অনুষ্ঠান প্রচার হবে তাকে ঘিরে। কিন্তু আরমান আলিফ ১০টায় বাংলাভিশনে তো আসেনইনি; বরং তার ফোনও বন্ধ পাওয়া গেছে। সকাল ৯টা থেকে ফোনে বারবার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। এতে আমরা লাইভ অনুষ্ঠানটি প্রচার করতে পারিনি, যা আমাদের চ্যানেলের জন্য খুবই বিব্রতকর একটি ঘটনা। একজন শিল্পীর কাছ থেকে এ ধরেনের অপেশাদারমূলক আচরণ কোনোভাবেই কাম্য হতে পারে না। আমরা এর প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’
এদিকে বাংলাভিশনের অনুষ্ঠান প্রধান তারেক আখন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘এটা অনভিপ্রেত একটি ঘটনা। কারণ, আমরা আমাদের দর্শকদের প্রতি সবসময় কমিটেড থাকি। যদিও সেই কমিটমেন্ট আজ রাখতে পারিনি আরমানের অপেশাদারি আচরণের জন্য। প্রতিটি অনুষ্ঠান, বিশেষ করে লাইভ অনুষ্ঠানে প্রযোজক, উপস্থাপক ও শিল্পীর সমান দায়িত্ব থাকে। অতিথির কাছ থেকে এমন অপেশাদার আচরণ একেবারেই মেনে নেওয়া যায় না।’
উল্লেখ্য, ‘সকাল বেলার রোদ্দুর’ অনুষ্ঠানটি বাংলাভিশনে নিয়মিত সরাসরি প্রচার হয় প্রতি রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা ৫ মিনিটে।
এদিকে এ বিষয়ে আরমান আলিফের সঙ্গে মুঠোফোনে বাংলা ট্রিবিউনের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হলেও তিনি সাড়া দেননি।
আরমান আলিফের এমন অপেশাদারি আচরণের ঘটনা এটাই প্রথম নয়। শুরু থেকেই অডিও ইন্ডাস্ট্রিতে তার আচরণে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে আসছিলেন গান সংশ্লিষ্টরা।
প্রসঙ্গত, আরমান আলিফের কথা ও সুরে ঈগল মিউজিক থেকে প্রকাশিত ‘অপরাধী’ গানটির ভিউ অতিক্রম করেছে ২২ কোটি!, তাও আবার একটি চ্যানেলে। যা বাংলাদেশে ইউটিউবভিত্তিক সব গানের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে।


/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ