সৈকতে বসে ছবি দেখার জন্য দেওয়া হবে কম্বল

Send
বিনোদন রিপোর্ট, কান (ফ্রান্স) থেকে
প্রকাশিত : ১৬:৪২, মে ১৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৪৭, মে ১৪, ২০১৯

ম্যাসি সৈকতে কানে গত আসরের চিত্রপালে দে ফেস্তিভালে অফিসিয়াল সিলেকশনের ছবিগুলোর প্রদর্শনী, লালগালিচা, ফটোকল ও সংবাদ সম্মেলন বরাবরের মতোই কান উৎসবের বড় আকর্ষণ। তবে এগুলো উপভোগের জন্য চাই ব্যাজ কিংবা ইনভাইটেশন। সাধারণ দর্শকদের অবশ্য হতাশ হওয়ার কারণ নেই।
১৪ থেকে ২৫ মে দিনের শেষে পালে দে ফেস্তিভালের অদূরে ম্যাসি সৈকতে খোলা আকাশে তারার মিছিলে আয়োজন করা হবে উন্মুক্ত চলচ্চিত্র প্রদর্শনী। এর মধ্যে থাকবে ধ্রুপদী ও সাম্প্রতিক সময়ের ছবি আর এগুলোর তারকাদের উপস্থিতি। প্রতিদিন রাত সাড়ে ৯টায় আসন খালি থাকা পর্যন্ত দর্শকদের সাগরপাড়ে কম্বলসহ বসতে দেওয়া হবে।
এ আয়োজনের নাম ‘সিনেমা ডি লা প্লাজ’ তথা বিচ সিনেমা। মঙ্গলবার (১৪ মে) উদ্বোধনী দিনে ওপেনিং পার্টির মাধ্যমে শুরু হবে এই কার্যক্রম। বিখ্যাত ছবির কিছু গানের কারাওকে দর্শকদের মাতিয়ে রাখবে কনকনে হাওয়ায়। সেখানে চাইলে একসঙ্গে মনের আনন্দে গান গাওয়া যাবে। এমন মজার ও বিনোদনমূলক ভাবনা এবারই প্রথম যুক্ত করা হলো সিনেমা ডি লা প্লাজে।
বিচ সিনেমার তালিকায় রয়েছে ‘দ্য ফোর হান্ড্রেড ব্লৌস’ (১৯৫৯)। ফ্রেঞ্চ নিউ ওয়েভের এই মাস্টারপিস কানের প্রতিযোগিতা বিভাগে ছিল। এটি বানিয়ে সেরা পরিচালক হন ফ্রাঁসোয়া ত্রুফো। এতে অভিনয়ের স্বীকৃতিস্বরূপ ২০১৬ সালে সম্মানসূচক স্বর্ণ পাম পান জ্যঁ-পিয়ের লিউড।
প্রয়াত মার্কিন অভিনেতা-নির্মাতা ডেনিস হপারের ‘ইজি রাইডার’ ১৯৬৯ সালে কানের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে ছিল। এর মাধ্যমে হলিউডে নতুন যুগের সূচনা হয়। এই রোড মুভির ৫০ বছর পূর্ণ হবে আগামী ১৪ জুলাই। সিনেমা ডি লা প্লাজে দেখানো হবে ধ্রুপদী ছবিটি। এতে ডেনিস হপারের সঙ্গে অভিনয় করেছেন জ্যাক নিকোলসন ও পিটার ফন্ডা।
ফরাসি নির্মাতা আলেন বারবারেনের ‘ফিয়ার সিটি: অ্যা ফ্যামিলি-স্টাইল কমেডি’র ২৫ বছর পূর্তি ২০১৯ সালে। এ উপলক্ষে এটি দেখানো হবে সৈকতে। এর প্রদর্শনীতে থাকবেন অভিনেতা আলেন শাবাত, জেরার্ড দামো, ডমিনিক ফারুজিয়া ও শানতাল লুবি। কানের আউট অব কম্পিটিশনে ছিল অ্যাঙ লি’র ‘ক্রাউচিং টাইগার হিডেন ড্রাগন’ (২০০০)। সৈকতে ছবিটির প্রদর্শনীতে হাজির হবেন এর অভিনেত্রী জ্যাঙ জিয়ি।
ফরাসি নির্মাতা এরিক র‌্যঁশোর ‘দ্য প্যাট্রিয়টস’ ১৯৯৪ সালে কানের প্রতিযোগিতা বিভাগে স্থান পায়। বিচ সিনেমায় এর প্রদর্শনীতে থাকবেন এই ছবির অভিনয়শিল্পী ইমানুয়েল দ্যুভোস ও বার্নার্ড ল্যুকক।
এ আয়োজনে আরও আছে ১৯৬২ সালে কানে চিত্রায়িত তুর্কি পরিচালক হেনরি ভারনিলের ‘অ্যানি নাম্বার ক্যান উইন’ (জ্যঁ গ্যাবিন, আলেন দ্যুলোন), জিম মরিসন ও তার ব্যান্ডের উত্থানের গল্প নিয়ে অলিভার স্টোনের ‘দ্য ডোরস’ (১৯৯১), সদ্যপ্রয়াত জন সিঙ্গেলটন পরিচালিত “বয়েজ’এন দ্য হুড” (১৯৯১),নারী রকতারকাদের ওপর দুই নির্মাতা ফ্রাঁসোয়া আমানে ও বেয়নের প্রামাণ্যচিত্র ‘হাই গার্লস’।
আগামী ২৫ মে অনুষ্ঠিত হবে সিনেমা ডি লা প্লাজের সমাপনী পার্টি। এর অংশ হিসেবে ম্যাসি সৈকতে পর্দায় থাকছে কারাওকে। ৭২তম কান চলচ্চিত্র উৎসবকে শেষবারের মতো উদযাপনের এই সুযোগ সবার জন্য উন্মুক্ত।
* ফ্রান্সের সময়ের সঙ্গে বাংলাদেশের পাঠকদের চার ঘণ্টা যোগ করে নিতে হবে।

/জেএইচ/এমএম/

লাইভ

টপ