নাটক কীভাবে সিনেমা হয়: ‘দি ডিরেক্টর’ প্রসঙ্গে পপি

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:৫৭, মে ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৪৬, মে ২১, ২০১৯

ছবিটির গানের দৃশ্যে পপি ও মারজুক রাসেলটানা ১২ বছর পর আসছে ঈদে মুক্তি পাচ্ছে পপি অভিনীত সিনেমা ‘দি ডিরেক্টর’। তাও আবার প্রেক্ষাগৃহে নয়, এটি সরাসরি মুক্তি দেওয়া হবে ইউটিউব চ্যানেলে!
মূলত এমন খবর প্রকাশের পর, বেজায় চটেছেন চিত্রনায়িকা পপি। তিনি এটাকে সিনেমা বলতেই নারাজ! তার দাবি, এটা মূলত নাটক।
২১ মে বিকাল ৪টার দিকে মুঠোফোনে তিনি বলেন, ‘এটা তো কোনও সিনেমা না। টিভির জন্য একটা নাটক ছিল মাত্র। ১২ বছর আগে এর শুটিং করেছিলাম। ঠিক মনেও নেই। এত বছর পর একটা নাটক কীভাবে সিনেমা হয়? একজন শিল্পীকে মেরে ফেলার জন্য এটা একটা ক্রাইম। এগুলো হলো প্রতারণা।’
কবি ও নির্মাতা কামরুজ্জামান কামু পরিচালিত আলোচিত ছবি ‘দি ডিরেক্টর’ নানা কারণে গত প্রায় ১২ বছর ধরেই আলোচনায়। ২০০৭ সালে ছবিটির শুটিং শুরু হয়। ২০১৩ সালে সেন্সরে জমা পড়ে। ২০১৫ সালে ছাড়পত্র পায়। অবশেষে ২০১৯ সালের এই ঈদে মুক্তির আলো দেখতে যাচ্ছে ‘দি ডিরেক্টর’।
ছবিটির শুটিং শুরুর সময় বেশ আলোচনায় আসেন এর প্রধান দুই পাত্র-পাত্রী মারজুক রাসেল আর পপি। কারণ, তারা প্রথম সিনেমায় জুটি বাঁধেন। এরপর বহুবার ছবিটি আলোচনায় আসে- শুটিং প্যাকআপ, পপিকে নিয়ে মারজুকের গান গাওয়া, সেন্সরবোর্ডে আটকে থাকা, রাজপথে ছাড়পত্রের আন্দোলন, প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির বিষয়ে নানা জটিলতা ইত্যাদি বিষয়ের মাধ্যমে।   
নির্মাতা জানান, সানবিডিটিউব নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে ছবিটি মুক্তির আয়োজন চলছে। ‘দি ডিরেক্টর’-এর অনলাইন পরিবেশক হিসেবে যুক্ত হয়েছে ‘উই আওয়ার্স ক্রিয়েটিভ ফান্ডিং’ ইনিশিয়েটিভ প্ল্যাটফর্ম (www.whc.fund)। যার মাধ্যমে চলচ্চিত্রটি অনলাইনে দেখার পর দর্শক যদি মনে করেন, এটি তাকে বিনোদিত করেছে, তাহলে এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে যেকোনও পরিমাণ অর্থ, যেকোনও দেশ থেকে ডোনেট করতে পারবেন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই পদ্ধতিতে এখন শিল্পকর্মের বিনিয়োগ তোলা হচ্ছে। একই ধারায় এবার যুক্ত হচ্ছে বাংলাদেশের ছবি ‘দি ডিরেক্টর’।
পপি ও মরিজুকের গান:


প্রেক্ষাগৃহে না দিয়ে সরাসরি অনলাইনে কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে নির্মাতা কামু বলেন, ‘দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর আমরা ছাড়পত্র পেলেও উপযুক্ত পরিবেশক না পেয়ে আবারও ঝুলে পড়ে পুরো বিষয়টা। প্রায় চার বছর এভাবে কেটে গেল। তাই শেষ পর্যন্ত ইউটিউবে মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। আমরা মনে করি এটাই আমাদের ছবির জন্য যৌক্তিক প্ল্যাটফর্ম।’
ছবিটি মুক্তির আগে এরইমধ্যে দুটি গান ও টিজার ইউটিউবে প্রকাশ হয়েছে। এরমধ্যে একটি ‘আমি তোমার ডিরেক্টর, তুমি হিরোইন’। গানটি মারজুক রাসেলের লেখায় কণ্ঠ দিয়েছেন মমতাজ ও গীতিকার নিজেই। গানটিতে পপি আর মারজুক রাসেলের রসায়ন দেখার মতো। এরমধ্যে গানটি বেশ জনপ্রিয়তাও পেয়েছে। অন্য গানটি হলো নির্মাতা কামুর লেখা ও গাওয়া ‘হাতের ওপর হাতের পরশ রবে না’।
দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর ছবিটি প্রেক্ষাগৃহের বদলে ইউটিউবে মুক্তি দেওয়া এক ধরনের পরাজয় নয় কী? এমন প্রশ্নের জবাবে কামরুজ্জামান কামু বললেন, ‘দীর্ঘ সময় ধরে ছবিটির প্রতি মানুষের আগ্রহ জমে আছে। আমাদের মধ্যেও ছবিটি দেখানোর বিষয়ে একটা দায়বদ্ধতা তৈরি হয়েছে। এটা পরাজয় নয়, আমি বরং সার্থকতা হিসেবে দেখি। কারণ, কোনও বাধাই ছবিটাকে আটকে রাখতে পারলো না।’

‘দি ডিরেক্টর’-এ পপির নায়ক হিসেবে দেখা যাবে মারজুক রাসেলকে। তারা ছাড়াও এতে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম, নাফা, কচি খন্দকার, তারেক মাহমুদ, তানভীন সুইটি, নাফিজা জাহান, বাপ্পি আশরাফ, কামরুজ্জামান কামু প্রমুখ।
নির্মাতা জানান, ঈদের ছবির মতোই ‘দি ডিরেক্টর’ মুক্তি পাচ্ছে ঈদের দিন।
ছবিটির গল্প এগিয়েছে একজন চলচ্চিত্র নির্মাতার শুটিং আর সংসার জীবনের নানা টানাপড়েন নিয়ে।

ট্রেলার:

/এমআই/এমএম/

লাইভ

টপ