পরী-সিয়াম: ‘মহুয়া সুন্দরী’ থেকে ‘বিশ্বসুন্দরী’

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৪:৩২, জুন ১৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫১, জুন ১৮, ২০১৯

সিয়াম আহমেদ ও পরীমনিআজ (১৮ জুন) থেকে ফরিদপুরের বিভিন্ন লোকেশনে শুরু হলো ‘বিশ্বসুন্দরী’ ছবির শুটিং। এর মূল দুই চরিত্রে কাজ করছেন সিয়াম ও পরীমনি। তবে প্রথম লটের শুটিং শুরু হয়েছে পরীকে ঘিরে, নেই সিয়াম। চলবে টানা এক সপ্তাহ।
জুটি হয়ে দুজনার প্রথম কাজ এটি। ছবিটির শুটিং শুরুর আগে পরীমনি তার নতুন নায়ককে কেন্দ্র করে দারুণ একটি তথ্য প্রকাশ অথবা স্মৃতিচারণ করলেন ভক্তদের জন্য।

তিনি বললেন, ‘‘২০১৫ সালে একটা টিভি অনুষ্ঠানে আমাদের প্রথম আলাপ। আমি গেস্ট, সিয়াম হোস্ট। অনুষ্ঠানের বিষয়বস্তু ছিল আমার সিনেমা ‘মহুয়া সুন্দরী’। ছবির প্রমোশনটা বেশ জমিয়ে হয়েছিলো সেদিন। শো শেষে আমরা সেটের সবাই মিলে ছবি, সেলফি তুলতে তুলতেই সিয়ামকে বলছিলাম- ‘তুমি সিনেমার হিরো হয়ে যাও। হিরো হিরো ভাবভঙ্গি আছে তোমার মধ্যে।’ উপস্থিত সবার সাথে সেদিন সিয়ামও একদম হো হো করে হেসে উড়িয়ে দিলো ব্যাপারটা! ভাবটা এমন ছিল, নায়ক হওয়ার কোনও আগ্রহই নেই উনার মধ্যে! অথচ সেই সিয়াম এখন বাংলার হার্টথ্রব হিরো! তো কী দাঁড়ালো এবার! ফললো তো আমার কথা! যা বলেছিলাম ৪ বছর আগেই।’’

পরী আরও বলেন, ‘‘মজার বিষয় হলো সিয়ামের সঙ্গে আমার প্রথম পরিচয় রওশন আরা নীপার ছবি ‘মহুয়া সুন্দরী’র প্রচারণায়। আর প্রথম ওকে নিয়ে কাজ করছি চয়নিকা চৌধুরীর ‘বিশ্বসুন্দরী’তে! আমাদের চলাফেরাটা কিন্তু দুই সুন্দরী নারী নির্মাতার মাধ্যমে। এটা একটা মজার তথ্য।’’
নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীর জন্য ‘বিশ্বসুন্দরী’ প্রথম চলচ্চিত্র হলেও এ পর্যন্ত প্রায় ৪০০ একক আর ১৮টি ধারাবাহিক নাটক নির্মাণ করেছেন।
চয়নিকা বলেন, ‘আমি আশাবাদী সবাই মিলে দর্শকদের মন ছুঁয়ে যাওয়ার মতো একটি চলচ্চিত্র উপহার দিতে পারবো।’


শুটিং শুরুর আগে নির্মাতাকে মিষ্টিমুখ করছেন দুই অভিনেত্রী মিঠু ও পরীপরিচালক জানান, প্রথম পর্যায়ের শুটিংয়ে চিত্রনায়িকা পরীমনি ছাড়াও অংশ নিয়েছেন ফজলুর রহমান বাবু, মনিরা মিঠুসহ অনেকে। পরবর্তী লটে যোগ দেবেন সুবর্ণা মুস্তাফা, সিয়াম আহমেদ, আনন্দ খালেদসহ অন্যরা। এই ছবির শিল্পী তালিকায় রয়েছে আরও বেশ কিছু চমক। মঙ্গলবার (১৮ জুন) সকালে ক্যামেরা ওপেন করার আগে ক্ল্যাপস্টিক দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ছবির মহরত অনুষ্ঠিত হয়। আবেগাপ্লুত নবাগত চলচ্চিত্র পরিচালক চয়নিকা চৌধুরী বলেন, ‘‘আমি সংখ্যাতত্ত্বে তেমন বিশ্বাস করি না। তারপরও ভাবতে ভালো লাগছে, ১৮ আগস্ট ২০০১ সালে নাট্যপরিচালক হিসেবে দর্শক প্রথম আমাকে চিনেছিলেন। ১৮ বছর পর ১৮ তারিখেই চলচ্চিত্রের ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালাম। পুরো বিষয়টিই কাকতালীয়। প্রকৃতিই হয়তো এমনটি চেয়েছিল। আশা করছি ‘বিশ্বসুন্দরী’ চলচ্চিত্রের সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত সবার সহযোগিতায় দর্শকদের মনে রাখার মতো একটি চলচ্চিত্র উপহার দিতে পারবো।’’
সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স লিমিটেড প্রযোজিত ‘বিশ্বসুন্দরী’ চলচ্চিত্রের কাহিনি, চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন রুম্মান রশীদ খান। এ ছবির মাধ্যমে প্রায় আড়াই বছর পর চলচ্চিত্রের ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেন চিত্রনায়িকা পরীমনি।
তিনি বলেন, ‘‘স্বপ্নজাল-এ অভিনয় করার পর থেকেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম ভালো মানের চলচ্চিত্র, মন ছুঁয়ে যাওয়ার মতো চিত্রনাট্য ও চরিত্র না পেলে আর কখনোই চলচ্চিত্রে কাজ করবো না। ‘বিশ্বসুন্দরী’ চলচ্চিত্রের ‘শোভা’ চরিত্রটি শুধু আমি নই, যেকোনও অভিনেত্রীর জন্যই বিশেষ কিছু। আশা করি দর্শক আমার থেকে নতুন কিছু পেতে যাচ্ছে।’’শুটিং শুরুর আগে শিল্পী-কুশলীদের নিয়ে মহরত ঘোষণা করছেন নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী

/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ