ঢাকার পর্দায় ‘ওয়ান্স আপন অ্যা টাইম ইন হলিউড’

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১২:০৮, আগস্ট ২২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:৪৩, আগস্ট ২২, ২০১৯

পিট, ক্যাপ্রিও ও রবিসম্প্রতি পর্দায় এসেছে হলিউড ইতিহাসের অন্যতম বিতর্কিত ও মর্মান্তিক এক ঘটনা। ছবির নাম ‘ওয়ান্স আপন অ্যা টাইম ইন হলিউড’।
ষাটের দশকে সিরিয়াল কিলিংয়ের জন্য কুখ্যাত কাল্ট নেতা চার্লস ম্যানসন ও তার অনুসারীরা নির্বিচারে ৭ জনকে হত্যা করে সাড়া ফেলে দেয় যুক্তরাষ্ট্রে।
১৯৬৯ সালের এই ঘটনার হতভাগ্যদের একজন ছিলেন বিশ্বখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা রোমান পোলানস্কির অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী শ্যারন টেইট। ম্যানসন ফ্যামিলি নামে পরিচিত তার অনুসারীরা রোমান পোলানস্কির স্ত্রী শ্যারন টেইটসহ ৫ জনকে ১৯৬৯ সালের ৯ আগস্ট ধারালো অস্ত্রের আঘাতে হত্যা করে। পরদিন একই গোষ্ঠীর সদস্যরা লস অ্যাঞ্জেলেসের ধনাঢ্য দম্পতি লেনো ও রোজমেরি লাবিয়ানকাকেও হত্যা করে। মার্কিন ইতিহাসে এ দুটি হত্যাকাণ্ড টেইট-লাবিয়ানকা হত্যা মামলা নামে সুপরিচিত। এই ঘটনা অবলম্বনে কোয়ান্টিন টারান্টিনো নির্মাণ করেছেন ‘ওয়ান্স আপন অ্যা টাইম ইন হলিউড’ নামের চলচ্চিত্র। ঘটনাটির ৫০ বছর পূর্তিতে গত ২৬ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রে ছবিটি মুক্তি পেয়েছে। আগামী ২৩ আগস্ট বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পাবে ছবিটি।

ছবিতে বাস্তবতা আর কল্পনার মিশেল থাকছে। কমেডি ও থ্রিলারের মিশ্রণে নির্মিত চলচ্চিত্রটির প্রধান দুই চরিত্র রিক ও লিফের ভূমিকায় দেখা যাবে লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও এবং ব্র্যাড পিটকে। শ্যারন টেইটের চরিত্র করছেন মার্গট রবি।

এতে দেখা যাবে, রিক ডাল্টন নামের একজন নিজেকে হারিয়ে খোঁজা অভিনেতা এবং তার বন্ধু ক্লিফ বুথের সংগ্রাম নিয়ে এগিয়েছে গল্প। শ্যারন টেইট ছিলেন রিক ডাল্টনের প্রতিবেশী। না চাইতেও তাই রিক ও ক্লিফকে জড়িয়ে পড়তে হয় এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনাপ্রবাহে।

২০১৫ সালে কোয়েন্টিন টারান্টিনোর ‘দ্য হেইটফুল এইট’ মুক্তির পর থেকে দর্শক-সমালোচকরা অপেক্ষায় ছিলেন তার পরবর্তী চলচ্চিত্রের। এরই মধ্যে পরিচালক জানান, আর মাত্র দুটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেই অবসরে যাচ্ছেন তিনি। তাই ‘ওয়ান্স আপন অ্যা টাইম ইন হলিউড’ নির্মাণের ঘোষণা আসার পর থেকেই বিনোদন পত্রিকাগুলোর শিরোনামে। প্রধান কারণ অবশ্যই চলচ্চিত্রটির বিষয়বস্তু।

/এম/

লাইভ

টপ