behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

‘আমার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হতে অনেকেই ফোন করেছে’

মাহমুদ মানজুর১৪:৪৭, জানুয়ারি ১৫, ২০১৬

নন্দিত নায়িকা শাবানাকে নিয়ে গতকাল (বৃহস্পতিবার) সন্ধ্যায় অন্তর্জাল দুনিয়ায় ‘মুত্য’র গুজব রটেছে। একটি অখ্যাত সংবাদ মাধ্যমের ‘বিভ্রান্তিকর শিরোনাম’ ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকে। এমন খবরে উৎকণ্ঠা নেমে আসে সর্বত্র।

শাবানাএদিকে তাৎক্ষনিক ভাবে এমন খবরের সত্যতা নিশ্চিত করতেও অপারগ চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা। কারণ, এ অভিনেত্রী ২০০০ সাল থেকে সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। মাঝে মধ্যে দেশে আসলেও পরিবারের গণ্ডির বাইরে খুব একটা দেখা মেলে না তাকে।

তবে শুক্রবার দুপুর নাগাদ নিশ্চিত হওয়া গেছে, ফেসবুকে ছড়ানো মৃত্যুর খবরটি পুরোটাই গুজব। শাবানা নিজ পরিবারের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রেই আছেন এবং তিনি সুস্থ আছেন। তার সঙ্গে কথা বলে বাংলা ট্রিবিউনকে এমনটাই নিশ্চিত করেন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অমিত হাসান।

শাবানাতিনি এমন গুজবের তীব্র নিন্দা জানান। বলেন, ‘শাবানা ম্যাডাম বেঁচে আছেন, সুস্থ আছেন। তার মৃত্যুর গুজবটি খুবই নিন্দনীয়। বুহস্পতিবার রাতেই ম্যাডামের খুব কাছের কয়েকজন আত্মীয়ের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তারা আমাকে নিশ্চিত করেছেন, শাবানা ম্যাডাম ভালো আছেন।
অমিত হাসান আরও জানান, ৫ ফেব্রুয়ারিতে ম্যাডাম পারিবারিক কাজে ঢাকায় আসার সম্ভাবনা রয়েছে।
এদিকে খবর মিলেছে, এমন গুজবে খোদ অভিনেত্রী শাবানাও বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছেন। তার কাছের মানুষ প্রখ্যাত নির্মাতা আজিজুর রহমান বৃহস্পতিবার রাতে শাবানার সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলেছেন। এবং তিনি বিভিন্ন গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, এমন গুজবে শাবানা খুবই বিরক্ত।
যুক্তরাষ্ট্র থেকে শাবানা এ নির্মাতাকে মুঠোফোনে বলেন, ‘দিনভর আমার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হতে অনেকেই ফোন করেছে। আমি দীর্ঘদিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রে পরিবার নিয়ে বসবাস করছি। কেন, কোন কারণে এ ধরনের ভিত্তিহীন খবর প্রচার করা হলো জানি না। এমন খবর প্রকাশ করা কোনোভাবেই উচিত নয়। এতে শুধু আমি ও আমার পরিবার নয়, ভক্তরাও বিভ্রান্ত ও বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছে। আশা করছি এ ধরনের কাজ থেকে সংশ্লিষ্টরা বিরত থাকবে।’
প্রসঙ্গত, ১৯৯৭ সালে শাবানা হঠাৎ চলচ্চিত্র থেকে বিদায়ের ঘোষণা দেন। এরপর তিনি আর নতুন কোনও ছবিতে অভিনয় করেননি। বরং মিডিয়া থেকেই নিজেকে একরকম আড়াল করে রেখেছেন।
/এমএম/

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ