behind the news
IPDC  ad on bangla Tribune
Vision  ad on bangla Tribune

পাওয়া গেল পরীমনির কাবিননামা!

মাহমুদ মানজুর০০:১৯, ফেব্রুয়ারি ০১, ২০১৬

বাংলা ট্রিবিউনের কাছে পরীমনির বিয়ের কাবিননামা! সকাল থেকে অন্তর্জাল দুনিয়ায় ভাইরাল হওয়া পরীমনির বিয়ে কেন্দ্রিক নানাবিধ ছবি আর তথ্যের সঠিক পরিণতি ঘটবে এর মধ্যদিয়ে। এমনটাই মনে করেন পরীমনির আসল স্বামী দাবি করা ফেরদৌস কবীর সৌরভ।

কাবিননামাসৌরভ রবিবার রাত ১১টার দিকে পরীমনির সঙ্গে বিয়ে ও কাবিননামার বিষয়টি শতভাগ সত্যি বলে দাবি করেছেন বাংলা ট্রিবিউনের কাছে। এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত বলতেও আগ্রহ প্রকাশ করেছেন তিনি।

দিনভর কত জল্পনা-কল্পনা। রবিবার সকালে জানা গেল পরীমনির স্বামী ভোলার ইসমাইল। মিলেছে দুটি একান্ত ছবিও। সারাদিন পরীমনির পুরনো ছবি আর স্বামী ইসমাইলকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার ইতি ঘটে বিকাল নাগাদ, যখন স্বয়ং পরীমনিই মুখ খুলেছেন বিষয়টি নিয়ে।

ফেসবুকে বেশ অপ্রকাশযোগ্য ভাষায় তিনি কয়েক হাত দেখিয়ে দিলেন মিডিয়াকে। বললেন, এমন হাজারটা ছবি আছে আমার সঙ্গে। তবে কি সবাই আমার স্বামী? এরপর তো আরও চমকে দিলেন নিজেই অচেনা তিনজনের সঙ্গে তিনটি ঘনিষ্ঠ সেলফি প্রকাশ করে। যার ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘আজকের কুইজ- বলুনতো আমার পাশের এই ছেলেগুলোর সাথে আমার কী সম্পর্ক? হাজব্যান্ড রাইট??? পিকগুলো (ছবিগুলো) সেভ করে রাখেন। এগুলোও একদিন পুরনো হয়ে যাবে, তখন এ রকম নিউজে কাজে দেবে খুব...।’
রবিবার বিকাল থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত পরীমনির এমন আগুন প্রতিক্রিয়ায় কয়েক গামলা জল ঢেলে দিলেন শাকিল রিয়াজ নামের একজন ফেসবুকার। তিনি প্রকাশ করেন বেশ কিছু ছবি ও তথ্য। শাকিল রিয়াজের দেওয়া ফেসবুকের লেখাটি এমন, ‘একটু আগে পরীমনি ভাবীকে নিয়ে একটা পোস্ট দেখলাম, যেখানে ভাবীকে নিয়ে বিভিন্ন বিভ্রান্তিকর স্ক্যান্ডাল ছড়ানো হয়েছে। আসল সত্য হয়তো অনেকেই জানেন না। পরীমনির আসল নাম সামসুর নাহার স্মৃতি। ভাবী আমাদের খুব কাছের বড় ভাইয়ের বৌ। ভাইয়ের নাম সৌরভ কবীর। ভাবীকে নিয়ে এ সব বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানোর কারণে আমি আর মুখবুজে থাকতে পারলাম না। আমার মনে হলো এখনই সময়, আসল সত্যটা সবার সামনে তুলে ধরার। ভাই ও ভাবীর বিয়ে হয় ২৮ এপ্রিল ২০১২ সালে। ৩ বছর প্রেম করার পরে তারা নিজেদের ইচ্ছায় বিয়ে করেন এবং পরে সেটা দুই পরিবার থেকেই মেনে নেয়। ভাইয়ের বাসা যশোরের কেশবপুরে।’

শাকিল রিয়াজের দেওয়া নতুন ছবিগুলোশাকিল রিয়াজ আরও জানান, ‘ভাই এবং ভাবী নিজেদের পেশার জগৎ আলাদা। ভাই পেশায় একজন প্রফেশনাল ফুটবলার। ভাই এবং ভাইয়ের পরিবারের সম্মতিতেই ভাবী মিডিয়া জগতে প্রবেশ করেন। ভাই এবং ভাবীর নিজেদের ক্যারিয়ারের কথা চিন্তা করে তাদের এ সম্পর্কের কথা আড়াল করে রেখেছেন। তারা এখনও একসঙ্গে বিবাহিত জীবনযাপন করছেন। কিন্তু আজকের এ ঘটনার পরে আমি আর মুখ বুজে থাকতে পারলাম না। আসল সত্য সবার সামনে তুলে ধরলাম। ভাই ও ভাবী আপনারা কিছু মনে করলেও আমি বাধ্য হয়ে এই পোস্টটি করলাম। আমার এই পোস্ট নিয়ে যদি কারও কোনও সন্দেহ থেকে থাকে, তাহলে আমরা প্রমাণ দেওয়ার জন্য প্রস্তুত।’

মূলত শাকিল রিয়াজের এই স্ট্যটাসের সূত্র ধরেই পরীমনি-সৌরভের কাবিননামার সন্ধান মেলে। মুঠোফোনে রবিবার মধ্যরাতে বাংলা ট্রিবিউনের সঙ্গে কথাও বলেন সৌরভ।

/এমএম/

Global Brand  ad on Bangla Tribune

লাইভ

IPDC  ad on bangla Tribune
টপ