Vision  ad on bangla Tribune

সকালে হ‌ুমায়ূন সমাধিতে সন্ধ্যায় প্রেক্ষাগৃহে

মাহমুদ মানজুর১৩:২৫, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৬

মেহের আফরোজ শাওন। ছবি সাজ্জাদ হোসেনখুব মন খারাপ মেহের আফরোজ শাওনের। গত ক’দিন থেকে নিজেকে প্রায় একা এবং অসহায় মনে হচ্ছে।
কারণ, ‘কৃষ্ণপক্ষ’র জন্য কাঙ্ক্ষিত প্রেক্ষাগৃহ পাওয়া এবং না পাওয়ার ব্যথা। অনেক চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে আজ শুক্রবার মুক্তি পেল তার পরিচালনার ছবি। এটি তার জীবনের প্রথম চলচ্চিত্র নির্মাণ এবং সেটা হ‌ুমায়ূন আহমেদের অনুপস্থিতে তার গল্প অবলম্বনে। সব মিলিয়ে শাওনের জন্য ‘কৃষ্ণপক্ষ’ ছবিটির সফলতা-বিফলতার মাঝে অনেক বড় স্বপ্ন নিহিত রয়েছে। কথা কথায় তেমনটাই আভাস দিলেন তিনি। বললেন, ‘এই ছবিটার সঙ্গে আমার জীবনের সর্বোচ্চ আবেগ জড়িয়ে আছে। সঙ্গে চ্যালেঞ্জও।’
ছবি মুক্তির আগে রিয়াজের অসুস্থতাকেন্দ্রিক নানা ‘টানাপোড়েনের’ মধ্যে খুব নীরবে হেঁটেছেন ঠাণ্ডা মাথার শাওন।
সব ঠিকঠাক শেষ করেছেন ঠিকই। যদিও ভেস্তে গেছে ছবিটি মুক্তির প্রথম তারিখ (হ‌ুমায়ূন জন্মদিন)। সংশ্লিষ্টদের প্রশান্তি, রিয়াজের অমন হঠাৎ কঠিন ব্যামো উতরে শেষ তো হয়েছে ছবিটির শ্যুটিং-ডাবিং। জমকালো প্রিমিয়ার শেষে আজ শুক্রবার দেশের ১৬টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তিও পেয়েছে ‘কৃষ্ণপক্ষ’। অথচ এই সংখ্যাটা নিয়েই বেজায় মন খারাপ শাওনের। কারণ তিনি জানতেন ছবিটি প্রথম সপ্তাহে ন্যুনতম ৭০টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে। অথচ আগের দিন (বৃহস্পতিবার) নিশ্চিত হলেন ‘৭০’ সংখ্যাটি ছিল তার জন্য অনেকটাই শুভঙ্করের ফাঁকির মতোই।‘কৃষ্ণপক্ষ’ ছবির দৃশ্যে মাহি ও রিয়াজ

শাওনের ভাষায়, ‘এটা আসলে অনেকটা স্বপ্নভঙ্গের মতোই। এ নিয়ে এখন কিছু বলতে চাই না। আমি ধৈর্যে বিশ্বাসী। ছবিটি সবাই গ্রহণ করলে এই সংখ্যা আগামী সপ্তাহে দ্বিগুণও হতে পারে। যদি সেখানে কোনও সিনেমাকেন্দ্রিক রাজনৈতিক বিষয় না থাকে।’


ছবি মুক্তি পেল। আজ শুক্রবার নিশ্চই রিয়াজ-মাহিকে নিয়ে শাওন চষে বেড়াবেন রাজধানীর প্রেক্ষাগৃহে। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, ‘না। শুক্রবার আর তেমন কিছু করছি না। অনেক পরিকল্পনা চাপা দিয়ে ফেলেছি বৃহস্পতিবার রাতেই। মন খারাপ হলে কিংবা মন খুব খুশি হলে আমি যেখানেই থাকি ছুটে যাই হ‌ুমায়ূন সমাধিতে। আজও (শুক্রবার) সকালটা শুরু করেছি সেই সমাধি থেকেই। সারাদিন নুহাশপল্লীতে নিজের মতো করে কাটাব। বড়জোর, ফোনে খোঁজখবর নিব বিভিন্ন সিনেমা হলের।’মাহি ও রিয়াজ
সারাদিন নুহাশপল্লীতে কিংবা হুমায়ূন সমাধিতে কাটালেও সন্ধ্যা সাড়ে ছটার দিকে রিয়াজ-মাহিকে নিয়ে শাওন ঢুকবেন যমুনা ফিউচার পার্কের ‘ব্লকবাস্টার সিনেমাস’-এ। ‘কৃষ্ণপক্ষ’ দেখে সেখান থেকে ফিরবেন ধানমন্ডির ‘দখিন হাওয়া’য়।ছবির প্রিমিয়ারে বলাকা প্রেক্ষাগৃহের সাজ
প্রসঙ্গত, ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রযোজনায় ছবিটি পরিবেশনার দায়িত্বে আছে জাজ মাল্টিমিডিয়া।
/এমএম/এম/

লাইভ

টপ