behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

শুভ জন্মদিন মামুনুর রশীদ‘বয়স ৬৮ হোক, জন্মদিন তো ১৭তম’

মাহমুদ মানজুর০০:০১, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০১৬

আজ সোমবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) নাট্যজন মামুনুর রশীদের জন্মদিন। প্রতি চার বছর অন্তর একটি জন্মদিন পালন করতে হয় বর্ষীয়ান এ অভিনেতাকে। তাই প্রতি জন্মদিনেই তাকে নিয়ে ঘরে-বাইরে থাকে বাড়তি আয়োজন। আজ তিনি ৬৮ বছরে পা রেখেছেন। যদিও সেটি উহ্য রেখে তিনি বলছেন ভিন্ন কথা, ‘খাতা কলমে আমার বয়স ৬৮ হতে পারে, কিন্তু মনের বয়স তো মাত্র ১৭ বছর।’ হ্যাঁ, তাই তো। আজ তিনি পালন করবেন জীবনের ১৭তম জন্মদিন! এই ‘লিপইয়ার কিংবদন্তি’র সঙ্গে রবিবারের আলাপে উঠে এসেছে জীবনের আরও কিছু হিসাব-নিকাশ।     

মামুনুর রশীদবাংলা ট্রিবিউন: এবারের জন্মদিন নিয়ে আপনার ভাবনার কথা জানতে চাই।

মামুনুর রশীদ: ভাবনাগুলো খুবই পজিটিভ। প্রত্যেক বছর মানুষকে জন্মদিন নিয়ে বিরক্ত করতে হয় না। চার বছর পর পর আসে। ফলে বয়স আমার ৬৮ হোক, জন্মদিন তো ১৭তম!

বাংলা ট্রিবিউন: ৬৮ বছরে পা রাখলেন। সময়টা বেশ লম্বা। এতটা পথ পেরিয়ে আজ এই সময়ে নিজের কাছে কী মনে হয়?

মামুনুর রশীদ: বার বার মনে হয় আমার এই ৬৮ বছরের জীবনটা অর্থপূর্ণ হয়েছে কিনা। প্রতিদিন প্রশ্নের সম্মুখীন হই নিজের কাছে, আমি কি তেমন কিছু করতে পেরেছি এই জীবনে? মানুষের জন্য কিছু করতে পেরেছি? এই প্রশ্ন প্রতিদিন নিজেকে করি। মনে হয় আরও দেওয়ার আছে অনেক কিছু। বড় বিষয় কর্ম। একজন শেক্সপিয়ার মাত্র ৫২ বছর বেঁচে ছিলেন। তিনি যা দিয়ে গেছেন, আমরা তার থেকে লাখ লাখ মাইল দূরে।

বাংলা ট্রিবিউন: এই শিল্পের জীবনটা বেছে নেওয়ার কারণ কী? অন্য কিছুও তো করতে পারতেন।

মামুনুর রশীদ: গ্রামের বাড়িতে যাত্রাপালা দেখতাম। ছোটবেলায় ‘সোহরাব রুস্তম’ দেখে মুগ্ধ হয়েছি বারবার। অভিনয়ে আসার, শিল্পের পথে হাঁটার মূল কারণ ওই যাত্রাপালা। একটি যাত্রাপালা দেখে মানুষ হাসে, কাঁদে। অসাধারণ সব ব্যাপার ছিল যাত্রা মঞ্চকে ঘিরে। এ ছাড়া নিয়তি বলে একটা ব্যাপার আছে। নিয়তি এখানে নিয়ে এসেছে আমাকে। একটা সময় শিল্পের পথই হয়ে গেছে কাছের পথ, নিজের পথ।

মঞ্চে যখন মামুনুর রশীদবাংলা ট্রিবিউন: আপনার হাত ধরে অনেক শিল্পী উঠে এসেছেন। ভাবতে কেমন লাগে?

মামুনুর রশীদ: এটাই শিল্পী জীবনের স্বার্থকতা। আমার হাত ধরে আরণ্যক নাট্যদল করে অনেক শিল্পীর জন্ম হয়েছে। শুধু কী শিল্পী? অনেক নাট্যকার, পরিচালক, ডিজাইনার বেরিয়ে এসেছে। এটাই আমার ভালো লাগা। এটাই আমাকে বাঁচার স্বপ্ন দেখায়।

বাংলা ট্রিবিউন: একটি ভালো সিনেমা, একটি ভালো বই, একজন মানুষের জীবনকে কতোটা সমৃদ্ধ করতে পারে বলে মনে করেন?

মামুনুর রশীদ: ভালো বই কিংবা ভালো একটি সিনেমা হচ্ছে সুন্দর একটি জগৎ। লেখক কিংবা পরিচালক যে ভাবনাটা সৃষ্টি করেছেন, সেটা আমি দেখিনি, কিন্তু ওই বই পড়ে কিংবা ওই সিনেমা দেখে, সেই সুন্দর জগৎটি আমি গ্রহণ করলাম। একটি স্বার্থক সিনেমা, একটি স্বার্থক বই মানুষকে ব্যাপকভাবে সমৃদ্ধ করে। ‘পথের পাঁচালী’, ‘জীবন থেকে নেয়া’, ‘মেঘে ঢাকা তারা’ এসব সিনেমা তো আমাদের জীবনকে সমৃদ্ধ করেছে।

বাংলা ট্রিবিউন: এক জীবনে আপনার অনেক অর্জন। আপনার চোখে সে অর্জনগুলো কেমন?

মামুনুর রশীদ: মানুষের ভালোবাসা। এত এত মানুষ আমাকে ভালোবাসে- এর চাইতে বড় অর্জন আর কী হতে পারে? আমার চোখে ভালোবাসার কাছে সব অর্জনই তুচ্ছ।

বাংলা ট্রিবিউন: ১৭তম জন্মদিনে বাংলা ট্রিবিউন পরিবারের পক্ষ থেকে আপনাকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা।

মামুনুর রশীদ: আপনাদের সবাইকে ধন্যবাদ। কৃতজ্ঞতা জানাই তাদের, যাদের ভালোবাসায় আজও আমি ১৭ বছরের তরুণ।

মামুনুর রশীদ
তাকে ঘিরে আয়োজন:

নাট্যজন মামুনুর রশীদের ৬৮তম জন্মদিনটি আজ সোমবার বিশেষভাবে পালন করবে ‘মামুনুর রশীদ জয়ন্তী উদযাপন পরিষদ’। এই আয়োজনের শিরোনাম রাখা হয়েছে ‘সাম্য ও শিল্পের কারিগর মামুনুর রশীদ জন্মজয়ন্তী’। আয়োজকরা জানান, আজ সন্ধ্যা ৬টায় জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তনে এই আয়োজনে অংশ নেবেন শিল্প ও সংস্কৃতি অঙ্গনের মানুষেরা। অনুষ্ঠানটি সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। অনুষ্ঠানে আলোচনা অনুষ্ঠানের পাশাপাশি থাকছে আবৃত্তি ও গান।
/এমএম/

Global Brand  ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ