Vision  ad on bangla Tribune

একান্ত আলাপে শ্রাবন্তী‘বলেছিলাম শাকিবকে দাড়িতে বেশ মানাবে’

রূপক জামান১৩:৫১, মার্চ ০৮, ২০১৬

টুইটারে বাংলাদেশি অনেক ভক্তের সঙ্গে নিয়মিত কথা হয় শ্রাবন্তীর। কলকাতার ‘বিন্দাস’, ‘দিওয়ানা’, ‘অমানুষ’, ‘গয়নার বাক্স’ ও ‘বুনোহাঁস’-এর নায়িকা তিনি। সোমবার একদিনের ঝটিকা সফরে এসেছিলেন বাংলাদেশে। উদ্দেশ্য জাকির হোসেন সীমান্ত পরিচালিত ‘শিকারি’ ছবির মহরত। মহরত শেষে সোমবার রাতে কথা বললেন বাংলা ট্রিবিউন প্রতিবেদকের সাথে। 

শ্রাবন্তীবাংলা ট্রিবিউন: বাংলাদেশে প্রথমবার এলেন, কেমন লাগছে?

শ্রাবন্তী: মাত্র তো সকালে (সোমবার) এসে পৌঁছালাম। এখানকার মানুষের আতিথেয়তার অনেক গল্প শুনেছি কিন্তু আপনারা যে এত আন্তরিক তা এখানে না এলে বুঝতাম না। সত্যিই আমি মুগ্ধ।

ট্রিবিউন: কলকাতার অনেক শিল্পীদের পূর্বপুরুষ বাংলাদেশে থাকেন- আপনারও এরকম কেউ কি আছেন?

শ্রাবন্তী: আছে তো! আমার দাদা ও বাবার বাড়ি বরিশালে। সে হিসেবে আমাকে বাংলাদেশের মেয়ে বলতে পারেন।

ট্রিবিউন: বাংলাদেশের কোনও বিষয় আছে কি, যেটা খুব প্রিয়?

শ্রাবন্তী: ঐ যে বলালাম, আপনাদের আতিথেয়তার অনেক প্রশংসা শুনেছি। তবে আমার কাছে বাংলাদেশের ইলিশ মাছ খুব প্রিয়। কিন্তু কি জানেন কেউ না আমাকে এখনও ইলিশ খাওয়ালো না। আর জানেন আমি না বাসার খাবারের খুব ফ্যান। হোটেলে খেতে খুব একটা ভালো লাগে না। এখানে দুপুরে খাবারের সময় যখন আমি কামড় দিয়ে কাঁচা মরিচ খাচ্ছিলাম তখন জাজ মিডিয়ার আজিজ ভাই বলেন, ‘আরে আপু আপনি মরিচ খাচ্ছেন এভাবে!’ উত্তরে আমি মজা করে বলেছিলাম, ‘আমি তো বরিশ্যাইলা মেয়ে। খাবো না!’

ট্রিবিউন: শাকিব খানের সঙ্গে প্রথম কাজ করছেন- নিশ্চই জানেন তিনি ঢালিউডের সবচেয়ে বড় তারকা। এ নিয়ে আপনার কোনও মন্তব্য…

শ্রাবন্তী: হ্যাঁ আমি জানি। অনুভূতি তো অসাধারণ। আমি খুব কৃতজ্ঞ ধানুকা জির (এসকে মুভিজের কর্ণধার) কাছে- কারণ ২০০৮-এ আমার কামব্যাক মুভি থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত আমার পাশে থাকার জন্য। এসকে মুভিজের কারণেই আজ আমি শাকিব খানের মতো বড় তারকার সঙ্গে অভিনয় করছি।শ্রাবন্তী ও শাকিব খান

ট্রিবিউন: শাকিব খানের কোনও ছবি আগে দেখেছেন?

শ্রাবন্তী: হ্যাঁ, ইউটিউবে ওর কিছু গান দেখেছি! এখানে আসার আগে অশোক ধানুকা জি আমাকে ওর দুটো ছবিও দেখিয়েছেন। দেখেই বলেছিলাম ওকে খোঁচা খোঁচা দাড়িতে বেশ মানাবে। দেখেন আজকে কিন্তু ওকে দাড়িতে বেশ সুন্দর লাগছে! 

ট্রিবিউন: তার মানে তাকে আগে সুন্দর লাগেনি! আপনার পরামর্শেই আজ তার গালে খোঁচা খোঁচা দাড়ি…
শ্রাবন্তী: আরে আমি তা বলেছি নাকি! বলেছি আগের চেয়ে আজ বেশি ভালো লাগছে।

ট্রিবিউন: বাংলাদেশের ছবিতে এই প্রথম, কোন কারণে রাজি হলেন ছবিটি করতে?

শ্রাবন্তী: প্রথমত এটিতে ঢালিউড কিং অভিনয় করছে। এরপর তো অবশ্যই আমার চরিত্র ও গল্প পছন্দ হয়েছে তাই সাইন করেছি।

ট্রিবিউন: ছবিতে আপনার চরিত্রটি কেমন?

শ্রাবন্তী: সবকিছু যদি আগেই পাঠকদের জানিয়ে দিই, তাহলে কেমন হবে। ১৪ তারিখ থেকে শ্যুটিং শুরু হচ্ছে। তখন না হয় সব বলবো।

ট্রিবিউন: সকালে এসেছেন। বিকাল নাগাদ ঢাকার কোথাও ঘুরেছেন?

শ্রাবন্তী: ঘোরার সময় কই পেলাম? এলাম সকালে সন্ধ্যায় তো শুভ মহরত হলো। আবার সকাল (মঙ্গলবার) ৯টায় ফ্লাইট। দৌড়ের উপর আছি। সামনের বার এলে পুরো ঢাকায় ঘুরে দেখার ইচ্ছে আছে। বাপ-দাদার ভিটেতেও যাওয়ার ইচ্ছে আছে।

ট্রিবিউন: আমাদেরকে সময় দেওয়ায় জন্য ধন্যবাদ।

শ্রাবন্তী: আপনাকেও ধন্যবাদ। বাংলাদেশে আমার সকল ভক্তদেরকেও শুভেচ্ছা। খুব শিগগিরই দেখা হবে সিনেমা হলে।

শ্রাবন্তী। ছবি: সাজ্জাদ হোসেন।/জেডএ/এমএম/এনএ/ 

samsung ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ