দেশে মিঠুপুত্র, আজ দাফন

দেশে মিঠুপুত্র, আজ দাফন

Send
বিনোদন রিপোর্ট০১:১৫, মার্চ ০৯, ২০১৬

খালিদ মাহমুদ মিঠুমঙ্গলবার সন্ধ্যায় সদ্য প্রয়াত নির্মাতা ও চিত্রশিল্পী খালিদ মাহমুদ মিঠুর ছেলে আর্য শ্রেষ্ঠ ইংল্যান্ড থেকে দেশে এসেছেন। আজ (বুধবার) বাদ আসরের পর প্রয়াতের বাবার কবরের পাশে বনানানী করবস্থানে সমাহিত করা হবে। এর আগে সকাল নয়টায় হিমাগার থেকে মরদেহ বের করে নিয়ে যাওয়া হবে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে। সেখানে শ্রদ্ধা জানাতে পারবেন দেশের সর্বস্তরের মানুষ।

এর ঘণ্টাখানেক পর মরদেহ আনা হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগে। জোহরের নামাজের পর এটি আনা হবে বিএফডিসিতে। এরপর চ্যানেল আই ভবনে প্রয়াতের দেহ আনা হবে। প্রতি স্থানে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এর পর বিকালে তাকে সমাহিত করা হবে।

সোমবার দুপুরে মারা যান এ কৃতী চলচ্চিত্রকার। রাজধানীর ধানমন্ডি-৪ এর সড়কে কৃষ্ণচূড়া গাছের শেকড় উপড়ে তার গায়ের উপর পড়ে। এসময় তিনি রিকশাযোগে বাসায় ফিরছিলেন। তাকে হাতপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। এদিন বাদ এশা প্রথম জানাজা মৃতের ধানমন্ডির বাসায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে মিঠুমিঠু ১৯৬০ সালের ১ জানুয়ারি ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। বড় হয়েছেন মামা প্রখ্যাত চিত্রনির্মাতা প্রয়াত আলমগীর কবিরের কাছে। তার মা বেগম মমতাজ হোসেন বিখ্যাত নাট্যকার।

চিত্রশিল্পী হিসেবে খ্যাতি তো ছিলই। সঙ্গে তার নির্মিত চলচ্চিত্র, নাটক, টেলিছবি এবং অসংখ্য মিউজিক ভিডিও প্রশংসিত হয়েছে। ২০১০ সালে প্রথম চলচ্চিত্র ‌‌'গহীনে শব্দ'-এর জন্য শ্রেষ্ঠ পরিচালক হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান তিনি। এর চার বছর পর তিনি তৈরি করেন ‌‌'জোনাকীর আলো' চলচ্চিত্র।

/এম/এমএম/

লাইভ

টপ