পাকিস্তানের যেকোনও লক্ষ্যবস্তুতে আঘাতে সক্ষম ব্রহ্মস ক্ষেপণাস্ত্র বানাচ্ছে ভারত!

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:০৮, অক্টোবর ১৯, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:১১, অক্টোবর ১৯, ২০১৬

ব্রহ্মস ক্ষেপণাস্ত্ররাশিয়ার সহযোগিতায় আগের চেয়ে আরও উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন নতুন প্রজন্মের ব্রহ্মস ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করছে ভারত। ক্ষেপণাস্ত্রটি ৬০০ কিলোমিটারেরও বেশি দূরের লক্ষ্যবস্তুতে যথার্থভাবে আঘাত হানতে পারবে। অর্থাৎ নতুন ক্ষেপণাস্ত্রের মাধ্যমে পাকিস্তানের যেকোনও জায়গায় অবস্থিত লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে পারবে ভারত। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এমন দাবি করা হয়েছে।
গত জুনে এমটিসিআর (মিসাইল টেকনোলজি কন্ট্রোল রিজাইম) এর অন্তর্ভূক্ত হয় ভারত। এর আওতায় সম্প্রতি গোয়ায় ব্রিকস সম্মেলন চলার সময় ভারত-রাশিয়ার মধ্যে এ সংক্রান্ত চুক্তি হয়। সেই চুক্তি অনুযায়ী ভারতকে এই মিসাইল তৈরিতে সাহায্য করবে রাশিয়া। এমটিসিআর-এর নির্দেশনা অনুযায়ী, এর সদস্য দেশগুলো অন্য কোনও দেশ যারা এর সদস্য নয়, তাদের কাছে ৩০০ কিলোমিটার বা তার দূরের রেঞ্জের মিসাইল বিক্রি বা হস্তান্তর করা পারবে না।
এতোদিন ভারতের কাছে যে ব্রহ্মস ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ছিল সেগুলোর সক্ষমতা ৩শ কিলোমিটার ছিল। আর সেগুলো দিয়ে পাকিস্তানের যেকোনও লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করা সম্ভব ছিল না। অবশ্য, নতুন জেনারেশনের ব্রহ্মস ক্ষেপণাস্ত্রের চেয়ে আরও বেশি সক্ষমতাসম্পন্ন ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ভারতের ছিল। তবে সেগুলো দিয়ে অতোটা সুনির্দিষ্টভাবে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করা যায় না।  
ব্রহ্মস ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে যেকোনও কোণ থেকে শত্রুপক্ষের উপরে আঘাত হানা সম্ভব, একেবারে নিখুঁতভাবে জঙ্গি ঘাঁটি উড়িয়ে দেওয়া সম্ভব। জঙ্গি ঘাঁটি অথবা দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় জঙ্গি শিবির খুঁজে উড়িয়ে দেওয়াও এর পক্ষে সম্ভব হবে।
গোয়ায় ভারত-রাশিয়ার মধ্যে যে সকল চুক্তি সাক্ষর হয়েছে তার মধ্যে ব্রহ্মস ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি ছাড়াও স্বল্প পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র যা বিমান বা সাবমেরিন থেকে ছাড়া সম্ভব সেগুলির চুক্তিও হয়েছে। রাশিয়া জানিয়ে দিয়েছে, নয়া প্রজন্মের এই ব্রহ্মস ক্ষেপণাস্ত্র তৈরিতে ভারতের সঙ্গে তারা হাত মিলিয়েছে। এটি জল-স্থল-অন্তরীক্ষ সব জায়গা থেকেই ছাড়া সম্ভব বলে দাবি করা হয়ে থাকে। 

/এফইউ/

লাইভ

টপ