Vision  ad on bangla Tribune

মার্কিনবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল ম্যানিলা, গ্রেফতার ২৩

বিদেশ ডেস্ক২১:৪৮, অক্টোবর ১৯, ২০১৬

মার্কিন সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ক্রমেই ফুঁসে উঠছে ফিলিপাইনের জনতা। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা খবর দিচ্ছে, মার্কিন-ফিলিপাইন সামরিক সম্পর্ক শিথিল করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি প্রেসিডেন্ট দুয়ার্তের আহ্বানের সমর্থনেই রাজধানী ম্যানিলার রাস্তায় নেমেছেন হাজারো জনতা। ফিলিপাইন পুলিশের বরাত দিয়ে বিক্ষোভস্থল থেকে ২৩ জনকে গ্রেফতারের কথা জানিয়েছে আলজাজিরা।

বিক্ষোভে উত্তাল ম্যানিলা

বিক্ষোভকারীদের দমন করতে তাদের ওপর পুলিশি ভ্যান তুলে দেওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে।  ছড়িয়ে পড়েছে এ ঘটনার ভিডিও। বিবিসির খবরেও বিক্ষোভকারীদের ওপর পুলিশি ভ্যান তুলে দেওয়ার খবর তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় হতাহতের সংখ্যা জানাতে পারেনি ওই সংবাদমাধ্যম।

উল্লেখ্য,  স্থানীয় গেরিলাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের উপদেষ্টা হিসেবে ২০০২ সালে সেখানে মার্কিন সেনা মোতায়েন করা হয়। ২০১৫ সালে বাতিল হয় সেই কর্মসূচি। তা সত্ত্বেও সেখানে এখনও মার্কিন সেনা রয়ে গেছে। সম্প্রতি ফিলিপাইনের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে ওবামার মন্তব্য এবং তার প্রতিক্রিয়ায় ওবামাকে মা তুলে গাল দেওয়ার প্রেক্ষিতে শিথিল হতে থাকে ফিলিপাইন-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্ক। এই বাস্তবতায় গত মাসে ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুয়ার্তে মিন্দানাও দ্বীপপুঞ্জ থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানান।

বিক্ষোভ চলাকালে জনতা পুলিশ সংঘর্ষ-১

ফিলিপাইনের সরকার চায় যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক। তবে জনতার একাংশের দাবি,  তাদের দেশে যুক্তরাষ্ট্র সামরিক উপস্থিতির অবসান ঘটাতে হবে। বুধবার তাউ দুয়ার্তের সমর্থনে হাজার হাজার মানুষ সেনা প্রত্যাহারের দাবিতে রাজধানী ম্যানিলায় মার্কিন দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ শুরু করে হাজারো মানুষ। বিক্ষোভকারীদের হাতে নানা ধরনের ব্যানার ও ফেস্টুন ছিল যাতে ফিলিপাইন থেকে মার্কিন সেনা ও সামরিক ঘাঁটি সরিয়ে নেয়ার দাবি জানানো হয়।

দাঙ্গা পুলিশের বেঁধে দেওয়া নিয়ন্ত্রণসীমা অতিক্রম করায় বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করা হয়। একটি পানির ট্যাংকের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় তারা, যেন সে পানি তাদের ওপর প্রয়োগ করতে না পারে পুলিশ।

একপর্যায়ে বিক্ষোভকারীদের দমন করতে তাদের শরীরে পুলিশি ভ্যানও তুলে দেওয়া হয়।

পুলিশি ভ্যানে বিক্ষোভ দমনের চেষ্টা

পরে বিক্ষুব্ধ জনতা পুলিশের গাড়িটি ঘেরাও করে। পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশ উত্তেজিত জনতার ওপর টিয়ারগ্যাসের শেল ছোঁড়ে।

এদিকে পুলিশের ওপর লাল রঙ ছিটানো এবং যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসে এক মার্কিন নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যের ওপর একইভাবে লাল রঙ ছিটানোর অভিযোগে ২৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সেখানকার এক পুলিশ মুখপাত্রের বরাত দিয়ে আলজাজিরা জানায়, বিক্ষোভকারীদের পুলিশের বেধে দেওয়া সীমা অতিক্রম করে দূতাবাসের দিকে এগিয়ে আসতে থাকলে তারা তাদের দমন করার সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হন।

ম্যানিলায় মার্কিন দূতাবাসের সামনে গত মাসে একই ধরনের বিক্ষোভ চলাকালে সেখান থেকে ছয়জনকে আটক করা হয়।

/বিএ/

লাইভ

টপ