behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

কচ্ছপের কাছে বাস্তবেও হেরে গেল খরগোশ!

বিদেশ ডেস্ক০১:০৮, অক্টোবর ২০, ২০১৬

কচ্ছপের কাছে বাস্তবেও হেরে গেল খরগোশ!খরগোশ আর কচ্ছপকে নিয়ে ঈশপের গল্পটি কে না জানে? কিন্তু অনেকেরই হয়ত মনে হতো, বাস্তবে এমনটা সম্ভব নয়। কিন্তু এই ভিডিওটি দেখলে সে সংশয় আর থাকবে না কারো।

ঈশপের গল্পটি ছিল এমন। একদা এক বনে এক খরগোশ আর কচ্ছপ পাশাপাশি বাস করত। দুই জনের মধ্যে বেশ বন্ধুত্বও ছিল। খরগোশ খুব জোরে ছোটে। আর কচ্ছপ? সে চলে ধীরে ধীরে হেলেদুলে। কচ্ছপের হাঁটা দেখে একদিন খরগোশটি আর চুপ করে থাকতে না পেরে হেসে ফেললো।

কচ্ছপকে এ রকম ব্যঙ্গ করতে শুনে কচ্ছপটি খরগোশকে গম্ভীর কণ্ঠে বলল, ‘এতো হাসার কী আছে? এসো প্রতিযোগিতায় নামো। তখন দেখা যাবে।’  শুরু হয়ে গেল প্রতিযোগিতা। খরগোশ একটু দৌড়েই পেছনে ফিরে তাকিয়ে দেখতে পেল কচ্ছপ অনেক অনেক পেছনে পড়ে আছে। সেদিন রোদের তেজ ছিল খুব। পাশেই একটা গাছের নিচে একটু ছায়া দেখে খরগোশ ভাবল, ‘একটু বিশ্রাম নেয়া যাক। এইখানে পৌঁছতে কচ্ছপের অনেক দেরি হবে।’ তো গাছের ছায়ায় ফুরফুরে হাওয়ায় খরগোশ ঘুমিয়েই পড়ল। অন্যদিকে কচ্ছপ সমানে একটানা হেঁটে চলল। যখন খরগোশের ঘুম ভাঙল নদীর তীরের সেই অশ্বত্থ গাছটার দিকে ছুটতে থাকল। সেখানে গিয়ে হাঁফাতে হাঁফাতে খরগোশ দেখল তার আগেই সেখানে কচ্ছপ পৌঁছে বিশ্রাম করছে।

তবে বাস্তবে কচ্ছপ আর খরগোশের দৌড়ে কি ঘটেছে তা জানতে হলে আপনাকে দেখতে হবে ভিডিওটি। এতে আছে খরগোশ আর কচ্ছপের দৌড়। ফলাফলও একই। কিন্তু মাত্র ৭ দিনে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তা দেখার ভিড় লেগেছে। ১০ অক্টোবর ভিডিওটি আপলোড করার পর ফেসবুকে দেখা হয়েছে ৪৭ লাখ বার। ‘ব্যাকবেঞ্চ ইন' ভিডিওটি প্রথমে আপলোড করে ফেসবুকে। ‘ফাইভ মিনিট ক্র্যাফট'ও পরে ফেসবুক পাতায় তা আপলোড করে। এরপর ট্রেন্ডিং ভিডিও ইউটিউবে আপলোড করেছে এটি।  একই তারিখে ইউটিউবে ভিডিওটি আপলোড করার পর ২৮ হাজার বার দেখা হয়েছে।

ভিডিওটি দেখুন:

সূত্র: ডয়চে ভেল।

/এএ/

Global Brand  ad on Bangla Tribune

লাইভ

IPDC  ad on bangla Tribune
টপ