behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

আলেপ্পোতে আসাদ বাহিনীর হামলায় একদিনে নিহত ৫১

বিদেশ ডেস্ক২০:৩০, নভেম্বর ৩০, ২০১৬

আলেপ্পোতে কাজ করা স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা হোয়াইট হেলমেটস জানিয়েছে, আলেপ্পোতে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের অনুগত বাহিনী এবং রাশিয়ার বিমান হামলায় অন্তত ৫১ বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন আরও দেড় শতাধিক মানুষ।

বিধ্বস্ত আলেপ্পো

হোয়াইট হেলমেটস-এর ফেসবুক পেইজে বলা হয়, ‘বিমান ও হেলিকপ্টার ব্যবহার করে দেড় শতাধিক হামলা চালানো হয়। সেই সঙ্গে বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকায় ১২০০টি আর্টিলারি শেল হামলাও চালিয়েছে সরকারি বাহিনী।’

আল মিয়াসার, বাব আল-নাইরাব এবং আল-সালহীন এলাকায় সবচেয়ে বেশি হামলা চালানো হয় বলে জানা গেছে।  

সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সানা জানিয়েছে, সোমবার সরকারি বাহিনী আলেপ্পোর বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত আল-হায়দারিয়া, আল-শাখোর, আল-ইনজারাত, আল-শেখ খেদর, জাবাল বাদ্রো এবং আল-হালকের বিস্তৃত এলাকা দখল করে নিয়েছে।  

স্থানীয় ত্রাণ কর্মীরা জানিয়েছেন, আলেপ্পোর পূর্বাঞ্চলে বিমান হামলায় নভেম্বরের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত ৬৯৪ জনেরও বেশি বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন।

এদিকে, রেড ক্রসের বরাত দিয়ে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, গত ৭২ ঘণ্টায় আলেপ্পো নগরী ছেড়েছে প্রায় ২০ হাজার বেসামরিক নাগরিক। বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত নগরীর পূর্বাঞ্চল থেকে হাজার হাজার বেসামরিক নাগরিক পালিয়ে যেতে বাধ্য হচ্ছে।

আলেপ্পো ছাড়ছে মানুষ

ফরাসি বার্তাসংস্থা এএফপি-কে রেড ক্রসের মুখপাত্র মুখপাত্র ক্রিস্টা আর্মস্ট্রং জানিয়েছেন, ২০ হাজারেরও বেশি মানুষ আলেপ্পোছেড়েছে। এই সংখ্যা আরও অনেক বেশি হতে পারে বলেও তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১২ সাল থেকে আলেপ্পোর পূর্বাঞ্চল বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে ছিল।

জাতিসংঘ জানিয়েছে, আলেপ্পোতে প্রায় আড়াই লাখ মানুষ আটকা পড়ে আছেন। সিরিয়ার সরকারি বাহিনী চলতি সপ্তাহে হামলার তীব্রতা বাড়ানোর পর সেখানকার জনগণ প্রাণ নিয়ে আলেপ্পো ছেড়ে আসছে।

সূত্র: আল-জাজিরা।

/এসএ/

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ