ট্রাম্পের মন্ত্রিসভায় থাকছেন সিনেটর হেইটক্যাম্প?

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:৪৫, ডিসেম্বর ০২, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:৫২, ডিসেম্বর ০২, ২০১৬

নর্থ ডাকোটার ডেমোক্র্যাট সিনেটর হেইটক্যাম্পনবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মন্ত্রিসভায় স্থান পেতে পারেন নর্থ ডাকোটার ডেমোক্র্যাট সিনেটর হেইডি হেইটক্যাম্প। ট্রাম্পের মন্ত্রিসভা গঠনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, তাকে স্বরাষ্ট্র বা বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে। তবে মার্কিন সংবাদমাধ্যম পলিটিকো জানিয়েছে, কয়লাপ্রেমী হিসেবে পরিচিত সিনেটর জো মানচিনকে  বিদ্যুৎমন্ত্রী করা হচ্ছে।

৮নভেম্বরের নির্বাচনে জয়ী হওয়ার ট্রাম্পের মন্ত্রিসভা গঠনে অন্তবর্তীকালীন টিম কাজ শুরু করে। ইতোমধ্যে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয় পরিচালনার জন্য মন্ত্রী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ নিরাপত্তা ও গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালকের নামও ঘোষণা করেছে ট্রাম্পের অন্তবর্তীকালীন টিম। ট্রাম্পের মনোনীত ব্যক্তিদের মধ্যে বেশ কিছু বিতর্কিত রাজনীতিবিদ ও আমলা রয়েছেন।

মার্কিন সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে,  হেইটক্যাম্প ছাড়াও জ্বালানিমন্ত্রী ট্রাম্প আরও দুজনের কথা বিবেচনা করছেন। তারা হলেন, কয়লা অঙ্গরাজ্য হিসেবে পরিচিত ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ার রক্ষণশীল ডেমোক্র্যাট সিনেটর জো মানচিন এবং গোল্ডম্যান স্যাশ গ্রুপের প্রেসিডেন্ট ও প্রধান অপারেটিং কর্মকর্তা গ্যারি কন।

এর আগে রয়টার্স জানিয়েছিল, শুক্রবার হেইটক্যাম্পের সঙ্গে বৈঠক করবেন ট্রাম্প। ট্রাম্পের অন্তবর্তী টিম জানিয়েছিল যে, হেইটক্যাম্পের সঙ্গে ট্রাম্প নিজেই সাক্ষাৎ করতে চেয়েছেন।

এক বিবৃতিতে নর্থ ডাকোটার এই সিনেটরও ট্রাম্পের বৈঠক করতে চাওয়াকে সাধুবাদ জানিয়েছিলেন। তিনি ট্রাম্পের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। তবে বিবৃতিতে কোনও মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হবে তা উল্লেখ করা হয়নি। তবে এ সিনেটরের মুখপাত্র জানিয়েছেন, ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকানদের সঙ্গে কাজ করার দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতা রয়েছে হেইটক্যাম্পের।

গত ডিসেম্বরে হেইটক্যাম্প আলাস্কার রিপাবলিকান সিনেটর লিসা মুরকোভস্কিকে কংগ্রেসে একটি বিলের বিষয়ে সমঝোতা করেন। এ সমঝোতা অনুসারে বায়ু ও সৌর বিদ্যুতের জন্য কয়েক বছরের কর মওকুফ সুবিধার বিনিময়ে অপরিশোধিত তেল রফতানিতে কয়েক দশকের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়।

হেইটক্যাম্প দেশীয় বিদ্যুৎ উৎপাদনের পক্ষে। ফসিল ফুয়েল ও নবায়নযোগ্য বিদ্যুতেরও সমর্থক তিনি। নর্থ ডাকোটা অপরিশোধিত তেল, কয়লা ও বায়ু শক্তির উৎস বলে পরিচিতি। নিজ রাজ্যে হেইটক্যাম্পের জনপ্রিয়তা রয়েছে। তবে ট্রাম্প প্রশাসনে তার অন্তর্ভূক্তিকে নর্থ ডাকোটার সব রাজনীতিবদরা সাধুবাদ জানাচ্ছেন না। সূত্র: রয়টার্স।

/এএ/

লাইভ

টপ