behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

পাকিস্তানের মাজারে হামলা: নিরাপত্তা শঙ্কায় আফগান সীমান্ত বন্ধ

বিদেশ ডেস্ক০৯:০৫, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৭

তোরখাম সীমান্তলাল শাহবাজ কালান্দার সুফি মাজারে বোমা বিস্ফোরণে ৭০ জনেরও বেশি মানুষ নিহত হওয়ার পর অনির্দিষ্টকালের জন্য আফগানিস্তান সংলগ্ন তোরখাম সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছে পাকিস্তান সরকার। নিরাপত্তাসংক্রান্ত কারণ দেখিয়ে সীমান্তটি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখার ঘোষণা দেওয়া হয়। পাকিস্তানের সেনা মুখপাত্র এবং রাজনৈতিক প্রশাসনের কর্মকর্তাদের বক্তব্যকে উদ্ধৃত করে দেশটির সংবাদমাধ্যম ডন খবরটি জানিয়েছে।

কর্মকর্তারা ডনকে বলেন, ‘পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ সীমান্ত পারাপারটি বন্ধ থাকবে এবং এবং এ সীমান্ত দিয়ে সব ধরনের বাণিজ্যিক কার্যক্রম স্থগিত থাকবে।’

এক টুইটে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর মুখপাত্রও খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

তোরখাম সীমান্তে নতুন করে নির্মিত পাকিস্তান গেইটটি চালু হয় গত বছরের আগস্টে। এ গেইট নির্মাণকে কেন্দ্র করে গত বছর আফগান ও পাকিস্তানি বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষও হয়েছে। ওই ঘটনায় দুই পক্ষের চার সেনা সদস্য নিহত হয়। সেসময় ছয়দিনের জন্য তোরখাম সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল।  

বৃহস্পতিবার সুফি মাজারে বোমা বিস্ফোরণের পর আবারও সীমান্তটি বন্ধ করে দেওয়া হলো।

পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশের শেহওয়ান এলাকার লাল শাহবাজ কালান্দার নামের সুফি মাজারে বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় আত্মঘাতী বোমা হামলায় অর্ধশতাধিক মানুষ নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে দেড়শ’ মানুষ। পাকিস্তানে শতাব্দী ধরে সুফিবাদ চর্চা হয়ে আসছে। লাল শাহবাজ কালান্দার হলো দেশটির সবচেয়ে সম্মানিত সুফি মাজার। বৃহস্পতিবার ছিল স্থানীয় সুফিদের জন্য বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ দিন। মাজারে ব্যাপক লোক সমাগম হওয়ার পর বোমা হামলা ঘটানো হয়। পাকিস্তান পুলিশের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা শাব্বির সেথার বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে টেলিফোনে নিশ্চিত করে বলেন, এই হামলায় অন্তত ৭২ জন নিহত ও ১৫০ জন আহত হয়েছেন। মৃতদের তালিকা ক্রমেই বাড়ছে। নিহতদের সংখ্যা এখনও সঠিকভাবে জানা যায়নি। তবে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডন ও ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এবং রয়টার্সের মতে, এখন পর্যন্ত ৭০ জনেরও বেশি মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। তবে ভারতের আরেক সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার দাবি, নিহতের সংখ্যা প্রায় ১০০।
/এফইউ/বিএ/

Global Brand  ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ