behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

ট্রাম্পের মুসলিম নিষেধাজ্ঞার নতুন আদেশ আগামী সপ্তাহেই

বিদেশ ডেস্ক১৪:২৬, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৭

ডোনাল্ড ট্রাম্পআদালতের আদেশে স্থগিত হয়ে যাওয়া মুসলিম নিষেধাজ্ঞাকে যেকোনও ভাবে আবারও ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সাত মুসলিমপ্রধান দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়ে ট্রাম্প যে নির্বাহী আদেশ দিয়েছিলেন তার জায়গায় নতুন একটি নির্বাহী আদেশ জারির ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। আগামী সপ্তাহে নতুন এ নিষেধাজ্ঞাটি জারি করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) হোয়াইট হাউসে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প জানান, নতুন করে জারি করতে যাওয়া নির্বাহী আদেশটিতে আগের নির্বাহী আদেশের ব্যাপারে আদালতের তোলা প্রশ্নগুলোর মীমাংসা করা হবে। কেননা, ফেডারেল আপিল আদালতের আদেশে তার আগের নির্বাহী আদেশটি স্থগিত হয়ে গেছে।
ফেডারেল আদোলতের স্থগিতাদেশকে আবারও খারাপ সিদ্ধান্ত হিসেবে উল্লেখ করে হোয়াইট হাউসে ট্রাম্প বলেন, ‘যে সিদ্ধান্তকে আমি খারাপ সিদ্ধান্ত বলে বিবেচনা করেছি তার বিপরীতে নতুন আদেশটি অনেক নিখুঁত হবে।’  
তিনি আরও বলেন, 'আমরা আগামী সপ্তাহে এ নির্বাহী আদেশটি জারি করব যা আমাদের দেশকে ব্যাপকভাবে সুরক্ষা দেবে।'
অবশ্য, নতুন আদেশে কী থাকবে সে ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানাননি ট্রাম্প।
সাত মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্র সফরে ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞার ওপর ৩ জানুয়ারি স্থগিতাদেশ দিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান বিচারপতি জেমস রবার্ট। সিয়াটলের আদালতে দেওয়া তার ওই স্থগিতাদেশের পর সান ফ্রান্সিসকো ভিত্তিক নাইনথ ইউএস সার্কিট কোর্ট অব আপিলস-এর শরণাপন্ন হয় ট্রাম্প প্রশাসন। সেখানেও ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞায় স্থগিতাদেশ বহাল থাকে। এরপর ট্রাম্প এক টুইটে বলেছিলেন, আদালতে দেখা হবে। আর তাতে গুঞ্জন উঠেছিল যে ট্রাম্প নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখার জন্য শেষ পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হবেন। তবে বিশেষজ্ঞরা তখন আভাস দেন যে সেখানেও রায়কে নিষেধাজ্ঞার পক্ষে নেওয়া ট্রাম্প প্রশাসনের পক্ষে কঠিন হবে। নিষেধাজ্ঞার যুক্তির পক্ষে যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণ না থাকা, বিচারপতিদের মধ্যে রিপাবলিকানদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকা, নিষেধাজ্ঞার সঙ্গে জড়িয়ে থাকা সাংবিধানিক অবমাননার প্রশ্নগুলো ট্রাম্পের জয়ে বাধা হয়ে দাঁড়াবে। এরপর সম্প্রতি ফ্লোরিডা যাওয়ার পথে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে নতুন নির্বাহী আদেশ জারির ইঙ্গিত দেন ট্রাম্প। তারই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার ট্রাম্প জানান, আগামী সপ্তাহেই তিনি নতুন করে একটি নির্বাহী আদেশ দেবেন।
আইনবিষয়ক বিশেষজ্ঞদের বক্তব্যকে উদ্ধৃত করে রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, নতুন আদেশের এমন কিছু থাকার সুযোগ রয়েছে যার মধ্য দিয়ে আদালতের জটিলতা মোকাবেলা করা সম্ভব হবে। নতুন আদেশে দেওয়া ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞায় মুসলিমপ্রধান দেশের পাশাপাশি অমুসলিম দেশকেও অন্তর্বূক্ত করা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাছাড়া, যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক নন কিন্তু বৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছেন এমন অভিবাসীদের নিষ্কৃতি দেওয়া হতে পারে।

/এফইউ/বিএ/




Global Brand  ad on Bangla Tribune

লাইভ

IPDC  ad on bangla Tribune
টপ