Vision  ad on bangla Tribune

ট্রাম্প নয়, সৌদিদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে ট্রাম্পকন্যা ইভানকা

বিদেশ ডেস্ক২১:১৪, মে ২০, ২০১৭

ইভানকা ট্রাম্প ও জারেড কুশনারমার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথম বিদেশ সফরে বর্তমানে সৌদি আরবে রয়েছেন ধনকুবের ব্যবসায়ী ডোনাল্ড ট্রাম্প। সফরের প্রথম দিনই যুক্তরাষ্ট্র থেকে ৬০০ কোটি ডলারের বিনিময়ে ১৫০টি অত্যাধুনিক ব্ল্যাকহক হেলিকপ্টার কেনার চুক্তিতে উপনীত হয়েছে রিয়াদ। তবে ট্রাম্পের এ সফর বা রাষ্ট্রীয় চুক্তি নিয়ে তেমন মাথাব্যাথা নেই সাধারণ সৌদি নাগরিকদের। বরং তাদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন ট্রাম্পকন্যা ফ্যাশন আইকন ইভানকা ট্রাম্প। সফরের প্রথম দিনই তিনি সৌদিতে টুইটারে অর্ধলক্ষাধিক হ্যাশট্যাগ পেয়েছেন।

২০ মে ২০১৭ শনিবার সৌদি বিমানবন্দরে ইভানকা পা রাখার পরই শুরু হয় এ টুইটার ঝড়। আরবিতে বিনতে_ট্রাম্প বা ট্রাম্পকন্যা লিখে হ্যাশট্যাগ দিতে শুরু করেন সৌদিরা। দেশজুড়ে টুইটারের ট্রেন্ডে পরিণত হয় আরবিতে লেখা বিনতে_ট্রাম্প।

সফরে ইভানকার সঙ্গে তার স্বামী জারেড কুশনারও রয়েছেন। কিছু ছবিতে এ দম্পতির সঙ্গে লাল রঙ-এর টাই পরা এক ব্যক্তিকেও দেখা গেছে। বহু সৌদি নারী টুইটারে সেসব ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘লাল টাই পরা এই ব্যক্তির সৌদি আরব ত্যাগ করা উচিত নয়।’

ইভানকা-কে উদ্দেশ্য করে এক নারী লিখেছেন, ‘তুমি ট্রাম্পকন্যা হতে পার, কিন্তু লাল টাই পরা লোকটি তোমার স্বামীর চেয়েও আকর্ষণীয়।’ আরেকজন লিখেছেন, হয় লাল টাই পরা লোকটিকে আমাকে এনে দাও অথবা আমাকে সমুদ্রে নিক্ষেপ কর।

ইভানকা ট্রাম্প ও জারেড কুশনার পাশে থাকা লাল টাই পরা এই ব্যক্তি ঝড় তুলেছেন সৌদি নারীদের হৃদয়ে

রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে বাবার সঙ্গে ইভানকা ট্রাম্পের উপস্থিতি অবশ্য এটাই প্রথম নয়। এর আগে জাপানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ট্রাম্পের বৈঠকে  অংশ নেন ইভানকা ট্রাম্প। তখনও অবশ্য বাবার প্রশাসনে তার কোনও দায়িত্ব ছিল না। ফলে রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে তার উপস্থিতি সমালোচনার জন্ম দেয়। এক পর্যায়ে হোয়াইট হাউসের ওয়েস্ট উইং-এ ইভানকা ট্রাম্পকে নিয়োগ দেওয়া হয়। এই ওয়েস্ট উইং’কে মার্কিন সরকারের নির্বাহী ক্ষমতার কেন্দ্র হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এর আগে হোয়াইট হাউসে ট্রাম্পের জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ পান ইভানকা’র স্বামী জারেড কুশনার।

২০১৭ সালের ২০ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথগ্রহণ করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। নিউ ইয়র্ক ছেড়ে রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে চলে আসলেও ঘোষণা দিয়েছিলেন,  বাবার প্রশাসনে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে কোনও পদ গ্রহণ করবেন না। তবে সরকারি পদে না থেকেও স্পর্শকাতর বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে তার উপস্থিতি অব্যাহত ছিল।

ট্রাম্পকন্যা ইভানকা ট্রাম্প অবশ্য এরইমধ্যে নিজেকে হোয়াইট হাউসের একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে প্রমাণে সক্ষম হয়েছেন। ট্রাম্প ক্ষমতা গ্রহণের কিছুদিন পরই গুরুত্বপূর্ণ একটি বৈঠকে অংশ নেন ফার্স্ট ডটার ইভানকা। নীতিনির্ধারণী বিষয়ে বিভিন্ন ব্যাবসায়িক প্রতিষ্ঠানের নির্বাহীদের সঙ্গে ট্রাম্পের বৈঠকে অংশ নেন তিন সন্তানের মা এবং ফ্যাশন সামগ্রী ও জুয়েলারি ব্যবসায়ী ইভানকা ট্রাম্প। সূত্র: সৌদি গেজেট, বিবিসি, এবিসি নিউজ।

/এমপি/

লাইভ

টপ