behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

রুশ হস্তক্ষেপ: সিনেটের প্রকাশ্য শুনানিতে সাক্ষ্য দেবেন কোমি

বিদেশ ডেস্ক২৩:০২, মে ২০, ২০১৭

জেমস কোমিমার্কিন সিনেটের ইন্টেলিজেন্স কমিটির প্রকাশ্য শুনানিতে সাক্ষ্য দেবেন বরখাস্ত হওয়া সাবেক এফবিআই প্রধান জেমস কোমি। মার্কিন সংবাদমাধ্যম পলিটিকো জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে রাশিয়া হস্তক্ষেপের তদন্ত সংশ্লিষ্ট এ শুনানিতে প্রকাশ্য সাক্ষ্য দিতে রাজি হয়েছেন কোমি।

শুক্রবার সন্ধ্যায় সিনেট কমিটির নেতা জানিয়েছেন, প্রকাশ্য শুনানিতে সাক্ষ্য গ্রহণের সময় ও তারিখ এখনও নির্দিষ্ট করা হয়নি। তবে ২৯ মে মেমোরিয়াল ডে-এর পরে এই শুনানি অনুষ্ঠিত হতে পারে।

এক বিবৃতিতে সিনেট কমিটির প্রধান ভার্জিনিয়ার ডেমোক্র্যাট সিনেটের মার্ক ওয়ার্নার বলেছেন, প্রেসিডেন্ট হঠাৎ করে সাবেক প্রধান কোমিকে বরখাস্ত করায় যেসব প্রশ্নের জন্ম হয়েছে এই সাক্ষ্যতে সেগুলোর উত্তর পাওয়া যাবে বলে আশা করছি। সম্মানের সঙ্গে অনেক বছর দেশকে সেবা করেছেন কোমি। তার সঙ্গে যা ঘটেছে তা বলার সুযোগ পাওয়ার উচিত। সবচেয়ে বড় কথা, আমেরিকার জনগণের এটা শোনার অধিকার রয়েছে।

কোমিকে বরখাস্তের পর  ট্রাম্পের রুশ সংযোগ তদন্তের দায়িত্ব নিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রড রজেনস্টেইন। এরপর এই বিষয়ে কংগ্রেসনাল তদন্ত স্থিমিত হয়ে যাওয়ার কথা। এছাড়া স্পেশাল প্রসিকিউটর হিসেবে রবার্ট মুয়েলারও দায়িত্ব নিয়ে কাজ শুরু করেছেন। তবে এক্ষেত্রে কোমিকে সিনেটের প্রকাশ্য শুনানিতে সাক্ষ্য দিতে আহ্বান করাটা ব্যতিক্রম। ধারণা করা হচ্ছে, সাক্ষ্যতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে তার কথোপকথন ও বরখাস্তের কারণ নিয়ে কথা বলতে পারেন কোমি।

বরখাস্ত হওয়ার আগে কোমি একটি মেমো লিখেছিলেন, যাতে দাবি করা হয়েছে জাতীয় নিরাপত্তা  উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিনের বিরুদ্ধে তদন্ত বন্ধ করতে চেয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

ফেব্রুয়ারিতে রুশ কূটনীতিকের সঙ্গে আলোচনার সূত্র ধরে মাইকেল ফ্লিনকে পদত্যাগে বাধ্য করে ট্রাম্প প্রশাসন।  হোয়াইট হাউসের দাবি, কোমিকে তদন্তের বিষয়ে কোনও চাপ দেননি ট্রাম্প। তবে এসব ঘটনায় রাশিয়ার সঙ্গে ট্রাম্পের প্রচারণা শিবিরের সংযোগের বিষয়টি আরও জোরালো হয়ে উঠছে।

এদিকে, শুক্রবার নিউ ইয়র্ক টাইমস প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানান কোমিকে বরখাস্ত করে তিনি ‘চাপমুক্ত’ হয়েছেন। ওই বৈঠকে ট্রাম্প কোমিকে ‘পাগল’ বলেও অভিহিত করেন। গত সপ্তাহে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ এবং রাষ্ট্রদূত সের্গেই কিসলিয়াকের সঙ্গে ট্রাম্পের বৈঠকটি হোয়াইট হাউসের ওভাল অফিসে অনুষ্ঠিত হয়। সূত্র: পলিটিকো।

/এএ/

Global Brand  ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ