রাখাইনে সহিংসতা নিরসনের প্রচেষ্টাকে সমর্থন করে যুক্তরাষ্ট্র: ট্রাম্প

Send
ললিত কে ঝা, ওয়াশিংটন
প্রকাশিত : ০৬:০৬, নভেম্বর ১৫, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ০৬:০৬, নভেম্বর ১৫, ২০১৭

ডোনাল্ড ট্রাম্প

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সৃষ্ট সহিংসতা নিরসনের চেষ্টাকে যুক্তরাষ্ট্র সমর্থন করে বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওই রাজ্যে ঘটে যাওয়া নৃশংসতার জন্য জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা হবে বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি। মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) আশিয়ান জোটভুক্ত রাষ্ট্র ও এ অঞ্চলের দেশগুলোর নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট এসব কথা বলেন। আশিয়ান জোটের বাইরেও ভারত, অস্ট্রেলিয়া, জাপান, চীন ও রাশিয়ার নেতারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

ফিলিপাইনের ম্যানিলায় পূর্ব এশিয়ার রাষ্ট্রগুলোর এ সম্মেলনে বক্তৃতা দেওয়ার সময় ট্রাম্প বলেন, ‘সহিংসতা নিরসনের সব ধরনের প্রচেষ্টাকে সমর্থন করে যুক্তরাষ্ট্র। এছাড়াও সেখানে ঘটে যাওয়া নৃশংসতার জন্য জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা এবং শরণার্থীদের স্বেচ্ছায় ও নিরাপদে ফিরে যাওয়ার পরিবেশ তৈরি নিশ্চিত করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র।’

তিনি বলেন, ‘মিয়ানমারের সরকারের প্রতিশ্রুতিগুলোকে আমরা স্বাগত জানাই। এছাড়া, রাখাইন রাজ্য নিয়ে আনান কমিশনের প্রস্তাবনাগুলো বাস্তবায়নে সমর্থন দিতেও আমরা প্রস্তুত।’

আশিয়ান সম্মেলনে নেতাদের জন্য আয়োজিত মধ্যাহ্নভোজের সময় দেওয়া বক্তৃতায় ট্রাম্প এসব কথা বলেন। এসময় কোনও গণমাধ্যমের উপস্থিতি ছিল না। পরে নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার সময় তার সফরসঙ্গী সাংবাদিকদের তিনি এর লিখিত কপি দিয়েছেন। হোয়াইট হাউসের নির্ধারিত প্রতিবেদকদের মধ্যেই শুধু এ বক্তৃতার কপি বিতরণ করা হয়।

পূর্বনির্ধারিত এ লিখিত বক্তব্যে বলা হয়েছে, আশিয়ান সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট যে চারটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে কথা বলেছেন তার মধ্যে এ ‘রোহিঙ্গা মুসলিম’ ইস্যু একটি।

ট্রাম্প বলেন, ‘মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলের রাখাইন রাজ্যে নিরাপত্তা বাহিনী ও সশস্ত্র গোষ্ঠীর হামলার শিকার হয়ে কমপক্ষে ছয় লাখ মানুষ বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে গেছে। আঞ্চলিক নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে উঠেছে— এমন কিছু মানবিক ইস্যুতে কথা বলে আমি আমার বক্তব্য শেষ করতে চাই।’

 

/এএইচ/টিআর/

লাইভ

টপ