জেরুজালেমে ১৪ হাজার বসতির পরিকল্পনা ইসরায়েলের

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১০:১২, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:০৬, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৭

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি ঘোষণার পর সেখানে ১৪ হাজার নতুন বসতি স্থাপনের পরিকল্পনা করছে ইসরায়েল। দেশটির স্থানীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইসরায়েলের এক প্রতিবেদন থেকে এতথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, জেরুজালেমের উত্তরাঞ্চলে ৫ হাজার বসতি স্থাপন করা হবে। রামাল্লাহর খুব কাছেই হবে বসতিগুলো। পূর্ব জেরুজালেমে হবে ১ হাজার বসতি। আর ৮ হাজার হবে পশ্চিম জেরুজালেমে।

বুধবার জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতির ঘোষণা দেন ট্রাম্প। স্থানীয় সময় বুধবার দুপুরে হোয়াইট হাউসে কূটনীতিকদের অভ্যর্থনা কক্ষে এক ঘোষণায় ট্রাম্প বলেন, ‘আমি মনে করছি, জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতির এটাই সময়।

এরপরই এমন বসতির ঘোষণা আসলো ইসরায়েলের পক্ষ থেকে। দেশটির রাজনীতিবিদন যুব গালান বলেন, ট্রাম্পের ঐতিহাসিক ঘোষণার পর আমরা জেরুজালেমে বসিত স্থাপন করতে যাচ্ছি।

প্রেস টিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, এই বসতি স্থাপন করা হলে বিগত দুই দশকে এটাই হবে সবেচেয়ে বড় দখল।

ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম জানায়, মন্ত্রিসভার সদস্যরা বলেছেন যে, এখন আমাদের বসতি স্থাপনে কোনও বাধা নেই।

ইসরায়েলের এই বসতি অবৈধ বিবেচনা করে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্পদ্রায়। ১৯৬৭ সালের পর থেকে এখন পর্যন্ত ২৩০টি বসতিতে ৫ লাখেরও বেশি ইসরায়েলি বসবাস করছে।

 

/এমএইচ/

লাইভ

টপ