পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে ডার স্পিগেল

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:৪১, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৪৬, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৮

প্রতারণা ও ভুয়া সংবাদের বিষয়ে প্রমাণ পাওয়ায় জার্মানির ডার স্পিগেল সংবাদপত্র তাদের এক সাবেক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ডার স্পিগেল বলেছে, সংশ্লিষ্ট সাংবাদিকের কর্মকাণ্ড তাদের প্রতিষ্ঠানের ৭০ বছরের ইতিহাসের সবচেয়ে কলঙ্কিত অধ্যায়। অথচ সংশ্লিষ্ট সাংবাদিক ক্লাস রেলোটিয়াস সিএনএনের কাছ থেকে পদক পেয়েছিলেন। নিউ জিল্যান্ডের রেডিওএনজে জানিয়েছে, রেলোটিয়াস একদিকে যেমন সিরিয়ার শরণার্থীদের নামে অর্থ সংগ্রহ করে তা আত্মসাতের চেষ্টা করেছে, অন্যদিকে তেমনি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক বিষয়ে লেখা প্রবন্ধে ভুয়া ও মনগড়া তথ্য উল্লেখ করেছে। এসবের কয়েকটির দায় সে নিজে স্বীকারও করে নিয়েছে।

ডার স্পিগেলের বরখাস্ত সাংবাদিক রেলোটিয়াস (৩৩) সিরিয়ার একটি বালক ও বালিকার ওপর প্রতিবেদন লিখেছিল। তাদেরকে ভাই–বোন হিসেবে উল্লেখ করে পাঠকদের সহায়তা পাঠাবার আহ্বান জানিয়েছি। কিন্তু পাঠকরা পরে ডার স্পিগেলকে জানিয়েছে, সে যে অ্যাকাউন্টের তথ্য দিয়েছিলে তাতে রেলোটিয়াসের ব্যক্তিগত ইমেইল এড্রেস ব্যবহার করা হয়েছে। তবে শেষ পর্যন্ত কত অর্থ ওই অ্যাকাউন্টে জমা হয়েছে তা জানা যায়নি। তুরস্কের যে ফটোগ্রাফার রেলোটিয়াসকে ছবি তুলে সহায়তা করেছিলেন তিনিও বলেছেন, সংশ্লিষ্ট সিরীয় বালকটির জীবন সম্পর্কে প্রতিবেদনেবহু বানোয়াট কথা লেখা হয়েছে। প্রতিবেদনের অপর কিছু অংশ রেলোটিয়াসের কল্পনাপ্রসূত।

শুধু আর্থিক প্রতারণাই নয়। অন্যান্য কিছু প্রতিবেদনের ক্ষেত্রেও সে তথ্যগত প্রতারণার ঘটানো ঘটিয়েছে। আর এর মাত্রা এতটাই বেশি যে জার্মানিতে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পর্যন্ত স্পিগেলের সম্পাদকের কাছে লেখা চিঠিতে স্বাধীন তদন্ত দাবি করেছিলেন। মার্কিন রাষ্ট্রদূতের দাবি, পত্রিকাটি পক্ষপাতদুষ্ট হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন প্রকাশ করে। যেসব প্রতিবেদন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের আপত্তি রয়েছে, তার একটি রেলোটিয়াসের। মিনোসোটার ওপর লেখা এক প্রতিবেদনে সে উল্লেখ করেছিল সেখানে রোড সাইনে লেখা আছে, ‘মেক্সিকানদের প্রবেশ নিষেধ।’ মিনোসোটার ওই প্রতিবেদন নিয়ে বিতর্ক হয়েছে অনেক।

তাছাড়া গুয়ানতানামো বে কারাগারে আটক ব্যক্তিদের ওপর লেখা প্রতিবেদনেও সে অসত্য তথ্য যুক্ত করেছে। ১৪টি প্রতিবেদনে ভুয়া তথ্য যুক্ত করার বিষয়ে তার স্বীকারোক্তি পাওয়া গেছে। তবে তার দাবি, পত্রিকাটির জন্য লেখা অপর ৬০টি প্রতিবেদন সঠিকভাবে লেখা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, রেলোটিয়াস সাংবাদিকতায় সাফল্যের স্বীকৃতি হিসেবে সিএনএনের কাছ থেকে পদকও পেয়েছিল।

/এএমএ/

লাইভ

টপ