নিউ জিল্যান্ডে মন্ত্রীকে ঘুষি, আটক ১

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০০:০২, মার্চ ১৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:২৯, মার্চ ১৬, ২০১৯

নিউজিল্যান্ডে জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী জেমস শয়ের মুখমণ্ডলে ঘুষি মেরেছে এক ব্যক্তি। এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে অন্যান্য রাজনীতিবিদরা। সংবাদমাধ্যম বিবিসি সংশ্লিষ্ট একটি সূত্রের বরাতে উল্লেখ করেছে, অভিযুক্ত ব্যক্তি জাতিসংঘের বিষয়ে স্লোগান দিচ্ছিল।
জেমস শ নিউ জিল্যান্ডের গ্রিন পার্টির নেতা। বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) ওয়েলিংটনে এক ব্যক্তি তার মুখমণ্ডলে ঘুষি মারে। শকে ঘুষি মারার দায়ে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির বয়স ৪৭ বছর। শুক্রবার তাকে আদালতে হাজির করা হবে।
দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, ‘নিউ জিল্যান্ডে কেউ এমন ঘটনা প্রত্যাশা করে না। নিউ জিল্যান্ডে এমন একটি সংস্কৃতি রয়েছে যেখানে রাজনীতিবিদরা সাধারণভাবেই সবার সঙ্গে দেখা করেন। আমাদের উচিত এটা নিয়ে গর্ব করা।’ কিন্তু আর্ডেন মনে করেন, বৃহস্পতিবারের ঘটনাটি দেখিয়ে দিয়েছে যে সাধারণভাবে জনসাধারণের সঙ্গে যোগাযোগ করার সংস্কৃতিটি হয়তো স্থায়ী হবে না।
গ্রিন পার্টির একজন মুখপাত্র বলেছেন, এই হামলার পেছেনে কোনও উসকানিই ছিল না। নিউ জিল্যান্ডের বাণিজ্যমন্ত্রী ডেভিড পার্কার সংবাদ মাধ্যমগুলোর কাছে বলেছেন, সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি জাতিসংঘের বিষয়ে স্লোগান দিচ্ছিল। বিবিসি লিখেছে, এটা এখনও নিশ্চিত নয় যে হামলাটির পেছেনে কোনও রাজনৈতিক কারণ ছিল কি না।
নিউ জিল্যান্ডের সব রাজনৈতিক মহল থেকে এ ঘটনার নিন্দা জানানো হয়েছে। নিউ জিল্যান্ড ন্যাশনাল পার্টির সিমোন ব্রিজেস ও ওয়েলিংটনের মেয়র জাস্টিন লেস্টার এ ঘটনার প্রতিবাদে টুইটারে শয়ের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।
আঘাতের কারণে তার এক চোখে কালো হয়ে গিয়েছিল। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।

/এএমএ/

লাইভ

টপ