স্ত্রীকে খুনের দায়ে ব্রিটিশ-বাংলাদেশির ২৬ বছরের কারাদণ্ড

Send
লন্ডন প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২২:৩৬, এপ্রিল ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৫৮, এপ্রিল ১৭, ২০১৯

যুক্তরাজ্যের লন্ডনে স্ত্রীকে হত্যার দায়ে এক ব্রিটিশ বাংলাদেশিকে ২৬ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন সে দেশের আদালত। পূর্ব লন্ডনের অধিবাসী ব্রি‌টিশ বাংলা‌দেশি গৃহবধূ না‌জিয়া বেগমকে (২৫) হত্যার হত্যার দায়ে তার স্বামী বাংলাদেশি নাগরিক আনহার আলীকে (৩২) ২৬ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন লন্ড‌নের ওল্ড বেইলি কোর্ট। 

আনহার ও না‌জিয়া দু‘জনই সিলেটের আদি বাসিন্দা। দাম্পত্য যাপনের একপর্যায়ে ২০১৭ সালে বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করে নাজিয়া। এরপর তারা আলাদা থাকতে শুরু করেন। আদালত সূত্রে জানা যায়, পূর্ব লন্ডনে নাজিরা দুই সন্তান নিয়ে যে পৃথক বাড়িতে থাকতেন, ২০১৮ সালের ২২ অক্টোবর সেখানে দু’টি ছুরি নিয়ে কয়েক ঘণ্টা ধরে লুকিয়ে ছিল আনহার। দুই সন্তান ঘুমিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সে নাজিয়াকে ছুকিরাঘাত হত্যা করে।

আদালতের নথি থেকে জানা গেছে, একজন ধর্মপ্রাণ মুসলিম হিসেবে স্ত্রী নাজিয়ার পাশ্চাত্য জীবনধারা মানতে পারেননি আনহার। ২০‌১৮ সালের এপ্রিলে স্ত্রীর নতুন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার খবর পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন তিনি। আদালতকে জানান, এ কারণেই নাজিয়াকে খুন করেছেন। বিচারক ওয়েন্ডি জোসেফ তার বিরুদ্ধে ২৬ বছরের সাজা ঘোষণা করতে গিয়ে বলেন, আসলে আনহার কোনোভাবেই মেনে নিতে পারেনি নাজিয়া তাকে ছেড়ে যাবে, বিবাহ বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেবে এবং নিজের মতো জীবনযাপন করবে।
আদালতের নথি অনুযায়ী, হত্যাকাণ্ডের পরদিন সকালে আনহার নিজেই পুলিশ ডাকেন। স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে খুবই স্বাভাবিকভাবে চা খেতে দেখেন। তিনি পুলিশকে শোবার ঘরে নিয়ে গিয়ে নাজিরার মরদেহ দেখান এবং খুনের কথা স্বীকার করেন। এরপর তাকে নিরাপত্তা হেফাজতে নিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়। গোয়েন্দা পুলিশের সার্জেন্ট জ্যাক ইলিস তদন্ত শেষে জানান, নাজিরার প্রতি আনহারের অনুভূতির জায়গা থেকে তার অন্য সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার বিষয়টি তিনি কিছুতেই মেনে নিতে পারেননি। সে কারণেই এই হত্যাকাণ্ড।

/বিএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ