সিরিয়া থেকে নাগরিকদের দেশে ফেরালো কসোভো

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৩:২৬, এপ্রিল ২০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:২৮, এপ্রিল ২০, ২০১৯

সিরিয়া যুদ্ধে অংশ নেওয়া কসোভোর জিহাদিদের পরিবারের কয়েক ডজন নারী ও শিশুকে দেশে ফিরিয়ে নিয়েছে কসোভো। ২০ এপ্রিল শনিবার বিমানযোগে তাদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নেওয়া হয়। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

কসোভোর আইনমন্ত্রী আবেলরাদ তাহিরি বলেছেন, ‘সিরিয়া থেকে আমাদের কিছু নাগরিকদের ফিরিয়ে আনার পরিকল্পনা সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। আজ দিনের শেষ ভাগে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হবে।

বিমানবন্দর থেকে দুইটি বাসযোগে পূর্বনির্ধারিত গন্তব্যে নিয়ে আসা হয় জিহাদিদের পরিবারের সদস্যদের। সেখানে তাদের পুলিশের কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে রাখা হয়েছে।

২০১২ সাল থেকে নারী ও শিশুসহ কসোভোর তিন শতাধিক নাগরিক সিরিয়ায় পাড়ি দিয়েছেন বলে ধারণা করা হয়। এদের মধ্যে অন্তত ৭০ জন পুরুষ সিরিয়ার যুদ্ধে অংশ নেয়। ১৫০ জনের মতো নারী ও শিশু আইএসের যুদ্ধক্ষেত্রে নিখোঁজ হন।

কসোভোর জনসংখ্যার ৯০ শতাংশ মুসলিম হলেও দেশটিতে ইসলামের প্রভাব কম। নাগরিকরা দৃশ্যত ধর্মনিরপেক্ষ মতবাদে বিশ্বাসী। দেশটিতে ধর্মকে কেন্দ্র করে কোনও হামলার রেকর্ড না থাকলেও ইরাক ও সিরিয়ার যুদ্ধকে কেন্দ্র করে শতাধিক মানুষকে কারাগারে পাঠানো হয়।

উল্লেখ্য, কসোভোর আলবেনীয় বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সার্ব বাহিনীর যুদ্ধ শেষ হয় ১৯৯৮-৯৯ সালে। ওই যুদ্ধে সার্বিয়ার বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান চালায় ন্যাটো। এতে কসোভো থেকে পিছু হটতে বাধ্য হয় সার্বিয়া। এর এক দশকের মাথায় ২০০৮ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাধীনতা লাভ করে কসোভো।

/একে/এমপি/

লাইভ

টপ